পুলিশ সুপারের প্রেস ব্রিফিং সাতক্ষীরায় পুলিশের অভিযানে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত জেএমবি আনসার উল্যাহ বাংলা টিমের দুই সদস্য আটক, ৫০ রাউন্ড গুলি উদ্ধার

331
gb

 

এম.শাহীন গোলদার,সাতক্ষীরা:
সাতক্ষীরায় পুলিশের অভিযানে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত জেএমবি আনসার উল্যাহবাংলা টিমের দুই সদস্যকে আটক করা হয়েছে। এ সময় উদ্ধার করা হয়েছে৫০ রাউন্ড পিস্তলের গুলি।সোমবার রাতে আটক আনসার উল্যাহ বাংলা টিমের দুই সদস্যকে সদরউপজেলার ভাদড়া গ্রামের নিজ নিজ বাড়ি থেকে আটক করা হয়।আটককৃত বাংলাটিমের দুই সদস্যরা হলেন, সদর উপজেলার ভাদড়া গ্রামেরমৃত হামিদুন্নবীর ছেলে জাহাঙ্গীর আলম বাবলু (৪০) ওরফে আক্তার ওরফে সাদএবং একই এলাকার আবুল খায়ের ঢালীর ছেলে আশরাফুল ইসলাম ঢালী (২৫)।
তারা পেশায় কৃষক।সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার সাজ্জাদুর রহমান দুপুর ১২ টায় এক প্রেস ব্রিফিংএ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ হেডকোযাটার্স ঢাকার এলআই সি শাখার একটি টিম, বগুড়া জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার একটিটিম ও সাতক্ষীরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মেরিনা আক্তারেরনেতৃত্বে জেলা গোয়েন্দা শাখার একটি টিম নাশকতা ও জঙ্গি তৎপরতারতথ্যের ভিত্তিতে সদর উপজেলার ভাদড়া এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এসময়আশরাফুলের বাড়ির রান্নাঘরের পাশ হতে ৫০ রাউন্ড পিস্তলের গুলিসহ
আশরাফুলকে তার বাড়ি হতে আটক করা হয়। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে অপরসদস্য জাহাঙ্গীর আলম বাবলুকেও তার বাড়ি থেকে আটক করা হয়।তিনি আরও জানান, তারা উভয়ে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত জঙ্গি। আনসার উল্যাহ বাংলাটিমের সাথে তাদের কার্যক্রম। দুই বছর আগেই ঢাকার মীরপুর এলাকারগোপন আস্তানা থেকে তারা প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে। সাতক্ষীরায় নানাবিধসন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও নাশকতার পরিকল্পনা করার জন্য অস্ত্র ও গুলি মজুদ করেরেখেছিল এবং তারা একটি স্বার্থান্বেষী অপশক্তির দ্বারা মদদ পুষ্ট।প্রেস ব্রিফিং এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকেএম আরিফুল হক,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মেরিনা আক্তারপ্রমুখ।