সাতক্ষীরার শহরে পরকীয়ার প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে স্বামীসহ আটক ৪

238
gb

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরায় শহরে স্বামী কতৃক স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগউঠেছে। এ ঘটনায় পুলিশ চারজনকে আটক করেছে। শুক্রবার ভোর
রাতে শহরের পারকুখরালি গ্রামে রাহাতুল্লাহ মিলে এ ঘটনাটিঘটে। নিহত সোনিয়া খাতুন (২৫) শ্যামনগর উপজেলার ঘোলা
গ্রামের সাদ্দাম হোসেনের স্ত্রী।আটককৃতরা হলেন-সোনিয়ার স্বামী সাদ্দাম হোসেন,মিল মালিকসোহাগ হোসেন,সাদ্দাম হোসেনের প্রেমিকা নাজমা খাতুন ওসাদ্দামের মা।সাতক্ষীরা সদর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মেরিনাআক্তার জানান,সাদ্দাম হোসেন ও তার স্ত্রী সোনিয়া খাতুন শহরেরকুখরালি গ্রামে রাহাতুল্লাহর মিলে কর্মচারি হিসেবে কাজকরতো। উক্ত মিলে কাজ করতো সদর উপজেলার ঝাউডাঙ্গা গ্রামেরইব্রাহিম খলিলের স্ত্রী নাজমা খাতুন। নাজমা খাতুনের স্বামী কাজকরে পাটকেলঘাটা ত্রিশ মাইল নামকস্থানে একটি কারখানায়। এর
মধ্যে নাজমা খাতুন সাদ্দাম হোসেনের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়েপড়্ধসেঢ়;। এ নিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে প্রায় ঝগড়া হতো।শুক্রবার ভোরে সাদ্দাম তার স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা করে গলায় রশি দিয়েঘরের ভিতর আড়ায় ঝুলিয়ে দেয়। তার মুখে গলায় ও পিটে আঘাতেরচিহৃ আছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদরহাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেছে।