ম্যাকেঞ্জি কিন্তু পদত্যাগ করেননি: আকরাম খান

37
gb

ক্রিকেটের জনপ্রিয় দুই ওয়েবসাইট ‘ক্রিকইনফো’ আর ‘ক্রিকবাজ’ শুক্রবার (২১ আগস্ট) তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছিল ‘বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ব্যাটিং কোচ ম্যাকেঞ্জি পদত্যাগ করেছেন’। সেখানে ম্যাকেঞ্জির উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়েছে যে, ‘বাংলাদেশের ক্রিকেট দলের ব্যাটিং কোচ পদ থেকে আমি পারিবারিক কারণে অব্যহতি নিয়েছি’।

বিকেলে এ খবর ছড়িয়ে পড়ে ক্রিকেট পাড়ায়। স্থানীয় মিডিয়ায় ফলাও করে প্রচার হয়েছে সে খবর। কিন্তু রাত পোহাতে মিললো ভিন্ন খবর। শনিবার (২২ আগস্ট) জাতীয় দলের পরিচর্যা, তত্ত্বাবধান ও কোচ নিয়োগসহ আনুষাঙ্গিক সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করার দায়িত্বে থাকা ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি প্রধান আকরাম খান গণমাধমকে জানান, ‘ম্যাকেঞ্জি কিন্তু পদত্যাগ করেননি।’

আকরাম বলেন, আমাদের কাছে তিনি যে মেইল পাঠিয়েছেন, তাতে এমন কথা বলা নেই যে বাংলাদেশের জাতীয় দলের সাথে তিনি আর কাজ করবেন না। এই করোনাকালীন সময়ে তিনি পারিবারিক অসুবিধার কারণে আমাদের সাথে কাজ করতে অপারগতা প্রকাশ করেছেন। মানে শ্রীলঙ্কা সফরের প্রস্তুতি ও শ্রীলঙ্কায় তিন টেস্ট চলাকালীন প্রায় ৬০ দিন সময় যে তার বাংলাদেশ দলের সাথে থাকার কথা ছিল, সেটা তিনি পারবেন না। কিন্তু বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং উপদেষ্টা পদ থেকে তিনি সরে দাঁড়িয়েছেন, আর কখনও কাজ করবেন না- এমন কথা কিন্তু বলেননি। তার মেইলে এমন কোনো কথা লেখা নেই।

তিনি জানান, আসলে প্রস্তুতি আর অনুশীলন মিলে দু’ মাসের ব্যাপার। এই সময়টা আমাদের জাতীয় দলের সাথে কাজ করতে না পারার অপারগতা প্রকাশ মানেই কিন্তু একদম সরে দাঁড়ানো নয়। এখন আমার মনেও জেগেছে প্রশ্ন, তিনি কি করে এমন কথা বললেন? কারণ আমাদের কাছে পাঠানো মেইলে তো পদত্যাগের কথা লেখা নেই।

তাহলে ম্যাকেঞ্জি ‘ক্রিকইনফো’ ও ‘ক্রিকবাজে’র কাছে পদত্যাগের কথা কথা জানিয়েছেন কেন? আকরাম খানের ব্যাখা, আমার কাছে যে মেইল এসেছে, তাতে এই কথা নেই। তাই আমি বলতে পারছি না, আসলে ম্যাকেঞ্জি ব্যাটিং কোচ পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন কি না।