বিয়ানীবাজারে যৌতুকের জন্য স্ত্রীর চুল কেটে নিলো স্বামী

872

 বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি ||

বিয়ানীবাজারে বর্বর এক স্বামীর নির্মম অত্যাচারের খবর পাওয়া গেছে। অত্যাচার থেকে বাচঁতে নির্যাতিত ওই গৃহবধূ থেকে কল দেন ৯৯৯ নম্বরে। একই সাথে বাবার বাড়ির স্বজনদের মোবাইল ফোনে কল দিয়ে তাকে উদ্ধার করার আকুতি জানান। পুলিশ কিংবা বাবার স্বজনদের সাহায্য চাওয়ায় বেড়ে য়ায স্বামীর নির্যাতনের মাত্রা। এক পর্যায়ে গৃহবধুর চুল কেটে দেয় যৌতুক লোভী স্বামী সুমন আহমদ (২৭)। ঘটবাটি বিয়ানীবাজার উপজেলার শেওলা ইউনিয়নের দিঘলবাগ এলাকায়। সোমবার সন্ধ্যায় একই ইউনিয়নের ঢেউনগর এলাকার বাবার বাড়ির লোকজন অচেতন অবস্থায় গৃহবধুকে উদ্ধার করে সিলেটের এমএজি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তিনি ঢেউনগর এলাকার ফয়জুর রহমানের মেয়ে আছমা বেগম। তার এক পুত্র সন্তান রয়েছে। পুলিশ জানায়, খবর পেয়ে দ্রুত সময়ের মধ্যে পুলিশ তৎপর হয়ে গৃহবধুর চিকিৎসা নিশ্চিত করার পর নির্যাতনকারী স্বামী সুমনকে গ্রেফতারে অভিযান চালায়। মঙ্গলবার ভোর রাতে দিঘলবাগ থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। দুপুরে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করেন। নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে নির্যাতনকারী স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন শাশুড়ি। বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অবনী শংকর কর বলেন, নির্যাতনের শিকার হওয়ার পর সচেতন এ গৃহবধু ৯৯৯ এ কল দিয়ে ঘটনা বলেন। তার বাবার বাড়ির লোকজন ভিকটিমকে উদ্ধার করে সিলেট হাসপাতালে ভর্তি করেন। পুলিশ ঘটনার পর থেকে নির্যাতনকারী গতিবিধির নজর রাখে এবং শেষ রাতে তাকে গ্রেফতার করে।