করোনা চিকিৎসায় বাংলাদেশে প্রথম রেমডেসিভির বানালো এসকেএফ

187

মো:নাসির, বিশেষ প্রতিনিধি জিবি নিউজ ২৪ ||

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কার্যকর ওষুধ রেমডেসিভির উৎপাদন ধাপ শেষ করেছে দেশীয় প্রতিষ্ঠান এসএকএফ ফার্মাসিউটিক্যালস। প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক (মার্কেটিং অ্যান্ড সেলস) ড. মুজাহিদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, শুক্রবার সকালে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো রেমডেসিভির উৎপাদান কাজ শেষ হয়েছে। তবে বাজারজাত করার আগে আরও কয়েকটি ধাপ রয়েছে। আগামী রোববার ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরে স্যাম্পল জমা দেওয়া হবে। তাদের সব প্রক্রিয়া ও পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর রেমডেসিভির বাজারে আসবে। তবে এ ওষুধের ডিস্ট্রিবিউশন সাধারণ ওষুধের মতো হবে না। কেবলমাত্র কিছু হাসপাতাল এবং ইনস্টিটিউশনে এই ওষুধ সরবরাহ করা হবে। কোনো খুচরা ওষুধের দোকানে এই রেমডেসিভির পাওয়া যাবে না বলে জানান ড. মুজাহিদ।

এদিকে, এসকেএফ ফার্মমাসিউটিক্যালস লিমিটেড থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সিমিন হোসেন বলেন, ‘বিশ্বে করোনার একমাত্র কার্যকর ওষুধ বলে স্বীকৃত জেনেরিক রেমডেসিভির উৎপাদনের সব ধাপ আমরা সম্পন্ন করেছি।’

এর আগে ওষুধ প্রশাসন অদিফতর গত মার্চ মাসে ওষুধটি ব্যবহারের অনুমতি দেওয়ার পর প্রতিষ্ঠানের ফর্মুলেশন বিজ্ঞানীরা মার্চ মাসের মাঝামাঝি থেকে রেমডেসিভির নিয়ে কাজ শুরু করেন জানিয়ে সিমিন হোসেন বলেন, ‘যেহেতু এটি একটি শিরায় দেওয়া ইনজেকশন, সে কারণে এর উৎপাদনে সূক্ষ্ম প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে হয়। দুই মাস ধরে এসকেএফ কর্মীদের নিরলস পরিশ্রমের ফলেই এত কম সময়ে এটা উৎপাদন করা সম্ভব হয়েছে।’

ওষুধের মূল উপাদান সরবরাহকারীদের সঙ্গে চুক্তি করে পর্যাপ্ত কাঁচামাল প্রাপ্যতা নিশ্চিত করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ইতোমধ্যে এসকেএফসহ দেশের ছয়টি ওষুধ কোম্পানিকে করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ এর জন্য রেমডেসিভির উৎপাদনের অনুমতি দিয়েছে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর। করোনাভাইরাসের জন্য এ ওষুধ কার্যকর বলে ইতোমধ্যে জানিয়েছে আমেরিকার দ্য ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ)।

রেমডেসিভির উৎপাদনের অনুমতি পাওয়া দেশের অন্য প্রতিষ্ঠানগুলো হলো, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস, বিকন ফার্মাসিউটিক্যালস, বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস, ইনসেপটা ফার্মাসিউটিক্যালস এবং হেলথ কেয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস।