দেশজুড়ে ডেঙ্গু আক্রান্ত ২৭,৪৩৭

88

মো:নাসির, বিশেষ প্রতিনিধি জিবি নিউজ ২৪ ||

২৪ ঘণ্টায় দেশজুড়ে হাসপাতালে ডেঙ্গুরোগী ভর্তির সংখ্যা ২ হাজার অতিক্রম করেছে। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় (৪ আগস্ট সকাল ৮টা থেকে ৫ আগস্ট সকাল ৮টা পর্যন্ত) ঢাকা শহরসহ দেশের ৬৩ জেলায় (রাজশাহী বাদে) ২০৬৫ জন ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এর আগে গত ৩ আগস্ট সকাল ৮টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা শহরসহ দেশের ৬৩ জেলায় (রাজশাহী বাদে) ১৮৭০ জন, ২ আগস্ট সকাল ৮টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা শহরসহ দেশের ৬৩ জেলায় (রাজশাহী বাদে) ১৬৪৯ জন, ১ আগস্ট সকাল ৮টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা শহরসহ দেশের ৬৩ জেলায় (রাজশাহী বাদে) ১৬৮৭জন, ৩১ জুলাই সকাল ৮টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় ১৭১২জন, ৩০ জুলাই সকাল ৮টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৪৭৭ জন, ২৯ জুলাই সকাল ৮টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা শহরসহ দেশের ৬০টি জেলার হাসপাতালগুলোতে ১ হাজার ৩৫ জন,  ২৮ জুলাই সকাল ৮টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় ৫০ জেলায় ১ হাজার ৯৬ জন ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরাধীন হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন্স সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম জানায়, নতুন আক্রান্ত ২০৬৫ জন নিয়ে এ বছর (৫ আগস্ট পর্যন্ত) সারাদেশে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে গিয়ে দাঁড়ালো ২৭ হাজার ৪৩৭ জনে। এর মধ্যে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৭ হাজার ৬৫৮ জন।

প্রাপ্ত তথ্যে দেখা গেছে, নতুন আক্রান্ত ২০৬৫ জনের মধ্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৮৩ জন, মিটফোর্ড হাসপাতালে ১০২ জন, ঢাকা শিশু হাসপাতালে ৩৮ জন, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৯৮ জন, হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট হাসপাতালে ৩০ জন, বারডেম হাসপাতালে ২৬ জন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫০ জন, রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে ১৯ জন, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১১৮ জন, পিলখানাস্থ বিজিবি হাসপাতালে ৫ জন, সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ৩০ জন, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ৫০ জন ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন।

অন্যদিকে, ওই ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৩৪ জন, ইবনে সিনা হাসপাতালে ১৫ জন, স্কয়ার হাসপাতালে ২৪ জন, ধানমন্ডিতে কমফোর্ট নার্সিংয়ে ৪ জন, শমরিতা হাসপাতালে ১১জন, ল্যাবএইডে ৯ জন, সেন্ট্রাল হাসপাতালে ২০ জন, হাই কেয়ার হাসপাতালে ৮ জন, হেলথ এন্ড হোপে ৫ জন, গ্রিন লাইফ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৯ জন, ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতালে ২৮ জন, ইউনাইটেড হাসপাতালে ১৭ জন, খিদমাহ হাসপাতালে ৫ জন, শহীদ মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৫ জন, সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২৮ জন, অ্যাপোলো হাসপাতালে ২১জন, আদ-দ্বীন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২২ জন, ইউনিভার্সাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৯ জন, বিআরবি হাসপাতালে ৮ জন, আজগর আলী হাসপাতালে ২৬ জন, বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ১১ জন, উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০জন, সালাউদ্দিন হাসপাতালে ১৩ জন, পপুলার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২০ জন, উত্তরা ক্রিসেন্ট হাসপাতালে ৪ জন ও আনোয়ার খান মর্ডান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৩ জন ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন বলে দৈনিক জাগরণকে জানান হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন্স সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের সহকারী পরিচালক ও চিকিৎসক আয়েশা আক্তার।

গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগে (শহর ব্যতীত) ২২১ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৮০ জন, খুলনা বিভাগে ১৫০ জন, রংপুর বিভাগে ৪৭ জন, রাজশাহী বিভাগে ১১২ জন, বরিশাল বিভাগে ৯৯ জন, সিলেট বিভাগে ৩৬ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৬১ জন ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন।

চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত দেশজুড়ে (ঢাকা শহর ব্যতীত) ৬ হাজার ৬৪৬ জন ডেঙ্গুজ্বরে রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

বর্তমানে ২৬৯৬ জন ঢাকার বাইরে স্থানীয় সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত ১৮ জনের মারা যাওয়ার তথ্য সরকারিভাবে বলা হলেও বিভিন্ন গণমাধ্যমসহ নানা সূত্র বলছে ১০০ জনেরও বেশি।