ইতালিয়ান ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বাংলাদেশের বিনিয়োগ বাড়াতে সেমিনার

68
gb

ইতালির ফ্লোরেন্সে বাংলাদেশে বিনিয়োগের বিভিন্ন সুযোগ সুবিধার কথা তুলে ধরে সেমিনার করেছে রোম বাংলাদেশ দূতাবাস। ১৭ মে বিকেলে ফ্লোরেন্স চেম্বার ভবনে এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

সেমিনারে বাংলাদেশ দূতাবাস, রোম বাংলাদেশের উন্নয়ন চিত্র, বিদ্যমান বিনিয়োগ বান্ধব পরিবেশ, বিনিয়োগের সম্ভাব্য ক্ষেত্রগুলি এবং বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা তুলে ধরেন।

ইতালিতে নিযুক্ত রোম বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আব্দুস সোবহান সিকদারের সভাপতিত্বে সেমিনারে ফ্লোরেন্স চেম্বার অব কমার্সের নেতৃবৃন্দসহ তুসকানা, উম্ব্রিয়া ও মার্কে অঞ্চলের প্রায় ২০ জন সফল ইতালিয়ান ব্যবসায়ী সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফ্লোরেন্স চেম্বার অব কমার্স এর মারিও কুরিয়া। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ফ্লোরেন্সের বাংলাদেশের অনারেরি কনসাল জেনারেল অ্যাডভোকেট জর্জিয়া গ্রানাতা।

রাষ্ট্রদূত প্রথমে বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ দেশে রূপান্তরিত করার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০২১ এবং ভিশন ২০৪১ সম্পর্কে এবং বিগত দশ বছরে বাংলাদেশের ধারাবাহিক অর্থনৈতিক উন্নয়নের চিত্র ব্যবসায়ীদের কাছে তুলে ধরেন।

এসময় রাষ্ট্রদূত বলেন, দ্বিপাক্ষিক ব্যবসা বৃদ্ধি ও বিনিয়োগের উত্তম ক্ষেত্র হিসেবে বাংলাদেশ বিবেচিত হতে পারে কারণ বাংলাদেশে রয়েছে স্থিতিশীল রাজনৈতিক অবস্থা, উৎপাদিত পণ্যের বিশাল বাজার, উৎপাদনের জন্য নিম্ন শ্রম মজুরি এবং সর্বোপরি সরকারের পক্ষে বিভিন্ন ধরনের বিনিয়োগ প্রণোদনা প্যাকেজ।

সেমিনারে ইকনমিক কাউন্সিলর মানস মিত্র ‘বাংলাদেশ: ডেস্টিনেশন নেক্সট (Bangladesh: Destination Next) শিরোনামে একটি পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন প্রদান করেন। প্রেজেন্টেশনের পরে প্রশ্ন-উত্তর পর্ব ও মুক্ত আলোচনায় অংশনেন উপস্থিত ব্যবসায়ীরা। রাষ্ট্রদূত ও ইকনমিক কাউন্সিলর ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর প্রদান করেন।

মুক্ত আলোচনায় ব্যবসায়ীরা দূতাবাসের এ উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং ইতালি ও বাংলাদেশের মধ্যে বাণিজ্যিক সম্পর্ক বৃদ্ধির ক্ষেত্রে এ ধরনের উদ্যোগ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেন।

এ সেমিনাররের মাধ্যমে বাংলাদেশ দূতাবাসের সঙ্গে ‍তুসকানা, উম্ব্রিয়া ও মার্কে অঞ্চলের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ স্থাপিত হয়েছে বলে বিশেষ অতিথি মারিও কুরিয়া উল্লেখ করে বলেন, বাংলাদেশ এবং ইতালির মধ্যে বাণিজ্যিক সম্পর্ক ধারাবাহিকভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং এ আয়োজন সম্ভাব্য ইতালিয়ান ব্যবাসায়ীদেরকে বাংলাদেশে বিনিয়োগের উৎসাহিত করবে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ দূতাবাস ইতালির বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চলে বিশেষ করে মিলান, ভেনিস, নেপলস, জেনোয়া, পালেরমো এবং কাতানিয়া শহরে এ ধরনের সেমিনার আয়োজনের উদ্যোগ নিয়েছে।

gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More