সিলেট জেলা পরিষদে লাঞ্চিত মোকাব্বির

76
gb

সিলেট নিউজ:: সিলেট জেলা পরিষদে বিএনপি ও মহিলা দল নেতৃবৃন্দের হাতে লাঞ্চিত হয়েছেন সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান। আজ বৃহস্পতিবার তিনি সিলেট জেলা পরিষদে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যান। সেখানে গিয়ে বিএনপি ও মহিলা দলের নেতৃবৃন্দের রোষানলে পড়েন। পরে অপমানিত ও লাঞ্চিত হয়ে হল ত্যাগ করতে বাধ্য হন মোকাব্বির।

জানা যায়- সিলেট জেলা পরিষদে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় আইডিয়া নামক একটি সংস্থার উদ্যোগে ‘ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল’ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মাসুক উদ্দিন, জেলা বিএনপির সাধারণ আলী আহমদ, মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসেইন সহ বিশিষ্ট রাজনৈতিক ও সামাজিক ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান চলাকালে হঠাৎ করে গণফোরামের মোকাব্বির খান সেখানে উপস্থিত হন। তখনই উপস্থিত অতিথিবৃন্দের মধ্যে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। বিএনপি সহ প্রায় সকল অতিথিবৃন্দ তখন আইডিয়া কর্তৃপক্ষকে ডেকে আনেন এবং মোকাব্বির খানকে অনুষ্ঠান থেকে বের করে দেওয়ার অনুরোধ জানান। এ অনুরোধে আইডিয়া কর্তৃপক্ষ মোকাব্বির খানকে হল থেকে বের করে দেন। এসময় মহিলা দল নেতৃবৃন্দ তাকে লাঞ্চিত ও অপমানিত করেন।

এ ব্যাপারে সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ বলেন, কোন বেঈমানের সাথে আমরা অতিথি হতে পারিনা। বেইমানের কোন ধর্ম নেই, সমাজ নেই। বেঈমান শুধু বেইমান-ই। তাই মোকাব্বির খানকে অনুষ্ঠান থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য :: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট-২ আসনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন গণফোরামের মোকাব্বির খান। নির্বাচনে কারচুপি ও অবৈধ উল্লেখ করে ঐক্যফ্রন্টের নেতৃবৃন্দ সংসদে শপথ না নেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। কিন্তু সিলেট-২ আসন থেকে উদীয়মান সূর্য প্রতীকে জয় পাওয়ায় গণফোরাম নেতা মোকাব্বির খান গত ২ এপ্রিল মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় জাতীয় সংসদ ভবনে তিনি শপথ নেন। তাকে শপথ বাক্য পাঠ করান স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

এরপর থেকে আলোচিত ও সমালোচিত হতে থাকেন মোকাব্বির খান। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ তাকে বেইমান বলে আখ্যায়িত করেন।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More