গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে স্কুলছাত্রী ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় মামলা

150
gb

গোপালঞ্জ প্রতিনিধি :

গোপালগঞ্জে স্কুলছাত্রী ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় লম্পট মুদি ব্যবসায়ী হিরু মোল্লাকে (৫৫) আসামি করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার কাশিয়ানী থানায় ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে হিরু মোল্লাকে আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন। মামলার বিবরণে বলা হয়েছে, কাশিয়ানী উপজেলার পেনা গ্রামের আব্দুল করিমের ছেলে হিরু মোল্লা পোনা বাজারে মুদি ব্যবসা করেন। পোনা এমএ খালেক উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর উপর তার লোলুপ দৃষ্টি পড়ে। গত ১৪ আগস্ট স্কুলে যাওয়ার সময় ওই ছাত্রীকে ফুসলিয়ে হিরু পাশ্ববর্তী আখ ক্ষেতে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। শিক্ষার্থীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে হিরু পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। স্থানীয়রা পিছু নিয়ে তাকে আটক করে মারপিট করে। এক পর্যায়ে পুলিশে খবর দিলে হিরু কৌশলে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। তারপর থেকে সে পলাতক রয়েছে। কাশিয়ানী থানার এসআই ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শীতল চন্দ্র পাল বলেন, ঘটনার দিনই ওই ছাত্রীর মা থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। তদন্তে ধর্ষণ টেষ্টা ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। প্রাথমিক তদন্ত শেষে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এখন অভিযুক্ত হিরু মোল্লাকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।