জাহিদ এফ সরদার সাদীর পিতার জীবনাবসান, ইন্না………..রাজিউন

765
gb

জিবিনিউজ24 ||

ক্যাপ্টেন(অবঃ)মারুফ রাজু, যুক্তরাষ্ট্রঃ বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সাবেক বৈদেশিক উপদেষ্টা ও বিএনপির বিশেষ দূত, অ্যামেরিকা প্রবাসী জনার জাহিদ এফ সরদার সাদীর স্নেহময় পিতা, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অবসরপ্রাপ্ত সচিব, জনাব সরদার আজহার আলী ইন্তেকাল করেছেন, ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নাইলাইহি রাজিউন।

বিএনপির এই গুরুত্বপুর্ন নেতার পিতৃবিয়োগে তাৎক্ষনিক ভাবে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দেশনায়ক তারেক রহমানের পক্ষে শোক প্রকাশ ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন তাঁর উপদেষ্টা ব্যারিষ্টার আবু সায়েম।

বহির্বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, সৌদী আরব, ফ্রান্স, সুইডেন, ডেনমার্ক, জার্মান, ইতালী, বেলজিয়াম, অস্ট্রিয়া, গ্রীস, ফিনল্যান্ড, নরওয়ে, কুয়েত, লেবানন, বাহরাইন, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কাতার, মালেশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, জাপান, দক্ষিন কোরিয়া, মালদ্বীপ, দক্ষিন আফ্রিকা এবং রাশিয়া বিএনপির পক্ষ থেকেও গভীর শোক প্রকাশ করা হয়েছে।

এছাড়াও দেশে বিদেশে বিএনপির নেতা-কর্মীগন, অসংখ্য গুনগ্রাহী এবং বন্ধুগন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই মৃত্যুতে শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করছেন।

আজ রাত সোয়া ৯টায় ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জনাব সরদার মারা যান। মৃত্যুর সময় তার বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর। আগামীকাল বাদ জোহর পল্লবী জামে মসজিদে মরহুমের নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। জানাযার পর মরহুমকে পল্লবী তাদের পারিবারিক কবরস্থানে তার স্ত্রীর কবরের পাশে দাফন করা হবে।

মরহুম সরদার আজহার আলী বরিশাল বিএম কলেজ থেকে স্নাতক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাষ্ট্র বিজ্ঞানে কৃতিত্বের সাথে এমএ পাস করার পর তৎকালিন পাকিস্তানের প্রশাসনের সিভিল সার্ভিসে যোগদান করেন। বাংলাদেশ স্বাধীনতার পুর্বে পিরোজপুর মহকুমা ম্যাজিস্ট্রেট হিসাবে চাকরি শুরু করেন।

পিরোজপুরে কর্মরত থাকা কালিন তিনি পিরোজপুরের স্বনামধন্য সাবেক এমএলএ আবদুস সালাম তালুকদারের কন্যা তৎকালিন একমাত্র মহিলা সরকারি ইডেন কলেজের ছাত্রী সংসদের ডিগ্রী সেকশনের সাধারন সম্পাদক রুবি জাকিয়ার সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।

তাদের প্রথম সন্তান জাহিদ এফ সরদার সাদীর জন্ম হয় পিরোজপুরে। প্রসাশনিক চাকরি জীবনে তিনি মহকুমা, জেলা, বিভাগীয় ও বাংলাদেশ সচিবালয়ের বিভিন্ন মন্ত্রনালয়ের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মরত ছিলেন। দেশে প্রসাশনিক কর্ম জীবনের পাশা পাশি তিনি বাংলাদেশের বৈদেশিক মিশন ও জাতিসংঘে প্রতিনিধি হিসাবেও কর্মরত ছিলেন।

মরহুম সরদার আজহার আলী দুই ছেলে, নাতী-নাতনীসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন ।

অন্যদিকে ২০১৪ সালে জাহিদ এফ সরদার সাদীর মা মিসেস আজহার আলী মারা যান। অত্যন্ত পরিতাপের বিষয়, সেসময় তার প্রিয় মাকে শেষ দেখাটুকু দেখতে পারেননি, আজ পর্যন্ত মায়ের কবরটি জিয়ারত করতে পারেননি তিনি।

আর আজ হারালেন বাবাকে, তাকেও তিনি শেষ দেখা দেখতে পেলেন না। বিএনপির এই ত্যাগী নেতার নামে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা থাকায় দীর্ঘ দিন যাবৎ বাংলাদেশে যেতে পারছেন না তিনি।

দুঃখ ভারাক্রান্ত হৃদয়ে মরহুম পিতার জন্য সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন জনাব জাহিদ এফ সরদার সাদী।