বাগেরহাটে ২০টাকায় ১মন টমেটো বিক্রয় সস তৈরীর পরিকল্পনা গ্রহন

779
gb

এস.এম. সাইফুল ইসলাম কবির, বাগেরহাট অফিস  ||
শায়েস্থা খানের আমলে যেমন ১টাকায় ১০মন চাউল পাওয়া যেতো তেমনী ২০টাকায় ১মন টমেটো বিক্রয় হচ্ছে। অবিশ্বাস্য হলেও ঘটনাটি বাস্তব রুপ ধারন করেছে,বাগেরহাটের ৯ উপজেলার হাট বাজার গুলিতে। জানা গেছে, ফকির হাট উপজেলার লখপুর ইউনিয়নের বল­ভপুর বিলের পার্শ্ববর্তী কয়েকটি গ্রামের শতাধিক কৃষক/কৃষানী গত কয়েক মাস ধরে মৎস্য ঘেরের ভেড়ী বাধের উপর বিপুল পরিমানে টমেটোর চাষ করেন। বাম্ফার ফলনও হয়। কৃষকরা প্রথম দিকে ন্যায্য মূল্যে উৎপাদিত টমেটো বিক্রয় করলেও বর্তমানে তা অখাদ্যতে পরিনত হয়েছে। উপজেলার লখপুর বাজার, টাউন নওয়াপাড়া বাজার, বেতাগা বাজার ও চুলকাঠি বাজার সহ বিভিন্ন হাট বাজারে ১মন টমেটো পাইকারী দরে ২০/৩০টাকায় বিক্রয় হচ্ছে।

বল­ভপুর বিলে চলতি বছর প্রায় ১০হেক্টর জমিতে টমেটোর চাষ হয়েছে। অধিকাংশ ক্ষেতে যে পরিমান টমেটো রয়েছে, তা তুলে বাজারে গিয়ে বিক্রয় করে যে পরিমান অর্থ উপার্জন হবে তাতে শ্রমিকের মূল্য পরিশোধ করা কখনোই সম্ভাব নই। তাই মাঠে বা ক্ষেতে অধিকাংশ টমেটো নষ্ঠ হয়ে যাচ্ছে। এঅবস্থায় উপজেলা কৃষি অফিস স্থানীয় চাষিদের বাচাতে তাদের-কে অভিনব পদ্ধতি অবলম্বন করার সিধান্ত গ্রহন করেছেন। তাদের-কে সস তৈরীর প্রশিক্ষন প্রদান করছেন। গতকাল সোমবার সকালে জেলা বীজ প্রত্যায়ন অফিসার মোঃ হাফিজুর রহমান, উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ মোতাহার হোসেন ও উপ-সহকারী কৃষি অফিসার বিপ্লব কুমার দাশ এর নের্তৃত্বে বল­ভপুর আইএফসি ক্লাবে শতাধিক কৃষক/কৃষানীকে সস তৈরীর বিষয়ে প্রশিক্ষন প্রদান করেন। তৈরীকৃত সস বাজারে বিক্রয় করলে চাষিরা অনেক লাভবান হবেন বলে তাদের ধারনা। এব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ মোতাহার হোসেন এর সাথে আলাপ করা হলে তিনি বলেন, ফল প্রক্রিয়াজাত করণের লক্ষ্যে বল­বপুর গ্রামের আইএফসি বাজার সংযোগ বিষয়ক প্রশিক্ষন প্রদান করা হচ্ছে। আর এটি করতে পারলে চাষিরা উৎপাদিত ফসল বিক্রয় করলে তারা লাভবান হবেন।