সাতক্ষীরার ব্রম্মরাজপুরে আঁখি বোস নামের এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার,আটক-৩

96
gb

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: সাতক্ষীরার ব্রম্মরাজপুরে গৃহবধূ আঁখি বোসের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার সকালে তার শ^শুর বাড়ির ফ্যানে আঁখির লাশ ওড়নার ফাঁসে ঝুলন্ত ছিল। এদিকে, নিহত আঁখির স্বামী অরুপ বোস, তার শ^শুর এস.কে বোস (সন্তোষ বোস) ও শাশুড়ি অশোকা বোসকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে। সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ব্রম্মরাজপুর পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাসানুজ্জামান জানান, আঁখির লাশ ঝুলন্ত থাকলেও তার দু’টি পা মেঝেতে পাতানো অবস্থায় ছিল। নিহতের নাক থেকে দুর্গন্ধযুক্ত বিষাক্ত পানি বের হচ্ছিল বলে জানান তিনি। তার দেহে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তিনি বলেন, এটি হত্যা না আত্মহত্যা তা এখনই বলা কঠিন। লাশটি ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান। তিনি জানান, এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত আঁখির স্বামী অরুপ বোস, তার শ^শুর এস.কে বোস ও শাশুড়ি অশোকা বোসকে আটক করা হয়েছে। এস.আই আরো জানান, তিন বছর আগে যশোর জেলার কেশবপুরের গড়ভাঙ্গা গ্রামের গোবিন্দ বসুর মেয়ে আঁখির সাথে বিয়ে হয়েছিল সাতক্ষীরা সদর ্ধসঢ়;উপজেলার ব্রম্মরাজপুর গ্রামের জ্যোতির্বিদ এস.কে বোসের ছেলে অরুপের। নিহতের মা জোছনা বসু তার স্বজনরা জানান, আঁখির শ্বশুর-শ্বাশুড়ি ও তার স্বামী প্রায়ই তাকে মারপিট ও নির্যাতন করতো। তারা আরো জানান, পারিবারিক কলহের জের ধরে আঁখিকে জোর পূর্বক গালে বিষ ঢেলে হত্যার পর লাশ ফ্যানে ঝুলিয়ে দেয়া হয়েছে। সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে এখনও কোন অভিযোগ দেয়া হয়নি। অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি আরো জানান, লাশ ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।##

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন