ফেসবুকে খবর পড়ে দুই ঘন্টায় হারিয়ে যাওয়া সন্তান পেলেন শৈলকুপার সাজ্জাদ

735
gb

আতিকুর রহমান,ঝিনাইদহ

হারিয়ে যাওয়া সন্তানকে অভিভাবকের হাতে তুলে দিয়ে সমাজসেবার আবারো নজীর স্থাপন করলো ঝিনেদার আঞ্চলিক ভাষা গ্রুপ। সোমবার বিকালে হারিয়ে যাওয়া তন্নি নামে ৫ বছরের একটি কন্যা শিশুকে তার বাবা সাজ্জাদ হোসেনের হাতে তুলে দেন সংগঠনের সহ-সভাপতি সাইফুল ইসলাম লিকু। সাজ্জাদ হোসেন জানান, তাদের বাড়ি শৈলকুপা উপজেলার খোন্দকবাড়িয়া গ্রামে। সোমবার সকালে তিনি তন্নিকে সাথে নিয়ে ঝিনাইদহ শহরের ৩ নং ট্যংকি পাড়ার বোনের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। কিছুক্ষন পরই তন্নি বাইরে বেরিয়ে হারিয়ে যায়। ঝিনেদার আঞ্চলিক ভাষা গ্রুপের পরিকল্পনা সম্পাদক এএসআই নাজমুল হাসান সবুজের বাড়ির সামনে দিয়ে তন্নি একা হেটে যেতে দেখে তাকে ডেকে নেন। তারপর তন্নী তার বাবার কাছে যাবে বলে জানায়। কিন্তু কোথায় পাবে বাবাকে ? উপায় না পেয়ে ঝিনেদার আঞ্চলিক ভাষা গ্রুপের সহ-যোগাযোগ সম্পাদক এএসআই নাজমুল ছবিসহ তন্নীর হারিয়ে যাওয়ার খবরটি ঝিনেদার আঞ্চলিক ভাষা গ্রুপের ওয়ালে পোষ্ট করেন। দুই ঘন্টার মধ্যে খবরটি ভাইরাল হয়ে যায়। তন্নির ফুফাতো বোন আশা খবরটি ফেসবুকে দেখে তার মামা সাজ্জাদকে জানালে দুই ঘন্টার মধ্যে তন্নীকে তার ফিরে পায়। এদিকে বিকালে আনুষ্ঠানিত ভাবে তন্নীকে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। ঝিনেদার আঞ্চলিক ভাষা গ্রুপের অফিসে গ্রুপের সহ-সম্পাদক আশরাফুল আলম, এএসআই নাজমুল হাসান, জাম্মিম সবুজ ও সোহাগ স্বপ্ন উপস্থিত থেকে তন্নিকে তার স্বজনদের হাতে তুলে দেন। ফেসবুকে দিয়ে তার সন্তানকে খুজে পেতে সহায়তা করার জন্য ঝিনেদার আঞ্চলিক ভাষা গ্রুপকে ধন্যবাদ জানান তন্নীর বাবা সাজ্জাদ হোসেন।