কমলগঞ্জে করোনা উপসর্গ নিয়ে দুইজনের মৃত্যু!

21
gb
4

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি।।

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার ভানুবিল গ্রামে করোনার উপসর্গ নিয়ে ওয়াহিদ মিয়া (৬০) ও প্রতিবেশী আলতা মিয়া (৬২) নামের দুই বৃদ্ধের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। প্রায় ৮ ঘন্টা ব্যবধানে এ দুই জনের মৃত্যু হয় বলে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়।

এদিকে রমুজ মিয়া (৫৭) নামে অপর এক প্রতিবেশী বৃদ্ধ অসুস্থ হয়ে নিজ বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন এবং অপর আরেকজন অসুস্থ হওয়ার কারনে ওই এলাকায় আতংক বিরাজ করছে স্থানীয়দের মাঝে।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার বিকালে জ্বর,শ্বাসকষ্ঠ নিয়ে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন ভানুবিল গ্রামের ওয়াহিদ মিয়া। তাকে সন্ধ্যায় প্রথমে কমলগঞ্জ সদর হাসপাতালে ও পরে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার শারিরীক অবস্থার অবনতি হলে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে রাত ১১ টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে জ্বর-কাশি নিয়ে মারা যান নিহত ওয়াহিদ মিয়ার সাথে থাকা প্রতিবেশী আলতা মিয়াও। এদিকে অপর প্রতিবেশী রমুজ মিয়া জ্বর,সর্দি-কাশি ও শরীর ব্যাথা নিয়ে অসুস্থ হয়ে নিজ বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য মনিন্দ্র সিংহ জানান, মৃত দুই জন এবং অসুস্থ ব্যক্তি জ্বর সর্দি কাশি, শ্বাসকষ্ঠসহ নানা সমস্যায় ভুগছিলেন।

মৌলভীবাজার সদর ২৫০ শয্যা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা: আহমেদ ফয়সল জামান জানান, কমলগঞ্জ থেকে আসা রুগীর শ্বাসকষ্টসহ করোনা উপসর্গ ছিলো যার কারনে তাঁকে আমরা করোনা ইউনিটে ভর্তি হওয়ার জন্য বললে তিনি ভর্তি হতে রাজি হননি তাই সিলেটে রেফার্ড করা হয়।

শুক্রবার দুপুরের দিকে কমলগঞ্জের স্বাস্থ্য বিভাগ করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া দুই ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করেছে বলে জানা গেছে।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন