নবীগঞ্জে প্রবাসীর বাড়ি বাড়ি সেনাবাহিনী, দোকান খোলায় অর্থদণ্ড করলেন ইউএনও

117
gb
1
মতিউর রহমান মুন্না, নবীগঞ্জ থেকে ::
নবীগঞ্জে হোম কোয়ারেন্টিন ও সামাজিক দূরত্ব  নিশ্চিতে কাজ করে যাচ্ছে সেনাবাহিনী ও উপজেলা প্রশাসন। পাশাপাশি স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইনও করছে তারা।
সোমবার দুপুরে ক্যাপ্টেন আ.স.ম শিহাবুজ্জামান শিহাবের নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর সদস্যরা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে সদ্য বিদেশফেরত প্রবাসীরা হোম কোয়ারেন্টিন মানছে কি-না তা খতিয়ে দেখেন এবং জনস্বাস্থ্যের সুরক্ষায় তাদের নির্ধারিত সময় পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে সচেতন করেন। এর আগে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পালের নেতৃত্বে অভিযান পারিচালিত হয়। এ সময় সরকারী নির্দেশ অমান্য করায় রসুলগঞ্জ বাজারে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এসময় তারা মাইকিং করে জনগণকে বাড়িতে নিরাপদে থাকার জন্য আহবান জানান। এ অভিযানে সার্বিক সহযোগীতা করেন নবীগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) উত্তম কুমার দাশ।
এ ব্যাপারে সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন এএসএম শিহাবুজ্জামান শিহাব জানান, করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধে, সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতের লক্ষ্যে সেনাবাহিনী মাঠে কাজ করছেন। বিদেশফেরত প্রবাসীরা হোম কোয়ারেন্টিন মানছে কি-না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে এবং জনস্বাস্থ্যের সুরক্ষায় তাদের নির্ধারিত সময় পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে সচেতন হয় কোথাও যেন জনসমাগম না হয় সে বিষয়ে নজরদারি রাখতে নিয়মিত টহল অব্যাহত রয়েছে।
এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিশ্বজিত কুমার পাল বলেন, মানুষকে ঘরে রাখা নিশ্চিত করতে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ওষুধ ও নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান ছাড়া সকল প্রকার ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। যারা সরকারী নির্দেশ অমান্য করে দোকান খোলা রাখে তাদের নিয়মিত অভিযান চালিয়ে জরিমানা করা হচ্ছে। বিদেশফেরত প্রবাসীদের হোম কোয়ারেন্টিনে রেখে সার্বক্ষণিক নজরদারির মধ্যে রাখা হয়েছে বলেও জানান ইউএনও।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন