ঝিনাইদহে পাশবিক নির্যাতন ১০ মাসে ১১২ জন নারী ও শিশুর ডাক্তারী পরীক্ষা

111
gb

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহ জেলায় নারী ও শিশু ধর্ষনের ঘটনা উদ্বেগ জনকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে। চলতি মাসেই ৭ জন নারী ও শিশু ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। গত অক্টোবর মাসে ১৬ জনের ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়। এছাড়া ১০ মাসে ডাক্তারী পরীক্ষা করা হয়েছে ১১২ জনের। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের পরিসংখ্যান বিভাগের থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে। হাসপাতালের অফিস সহকারী মোঃ ফেরদৌস হোসেন জানান, জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ধর্ষিতারা ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে আসেন। সবার পরীক্ষা যে পজেটিভ আসে তা কিন্তু না। অনেক সময় প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়েও মিথ্যা ধর্ষনের অভিযোগ দেওয়া হয়। তিনি বলেন, সত্য মিথ্যা যায় হোক পরীক্ষা করে আমরা রিপোর্ট যথাস্থানে পৌছে দিই। বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে প্রতিটি ধর্ষন ঘটনায় মামলা দায়ের ও ধর্ষককে গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনা হয়েছে।