বিয়ানীবাজারে শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের উত্যক্ত করার অভিযোগ

332
gb

মুকিত মুহাম্মদ, বিয়ানীবাজারঃ

বিয়ানীবাজার উপজেলার লাউতা ইউনিয়নের বাউরভাগ আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মুহিত রঞ্জন পাল এর বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের শারিরিকভাবে উত্যক্ত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
অভিভাবকদের অভিযোগ থেকে জানা যায়, অভিযুক্ত শিক্ষক মুহিত রঞ্জন পাল দীর্ঘদিন থেকে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন ভাবে উত্যক্ত করে আসছেন। গত রোববার তিনি বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে উত্যক্ত করলে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়। এ নিয়ে আজ সোমবার সকালে এলাকাবাসী উত্তেজিত হয়ে অভিযুক্ত ঐ শিক্ষককে অবরুদ্ধ করে রাখেন। পরে লাউতা ইউপি চেয়ারম্যান গৌছ উদ্দিন ও ইউপি সদস্যদের হস্তক্ষেপে প্রায় ৩ ঘন্টা পর ওই শিক্ষককে মুক্ত করা হয়।
প্রাপ্ত সূত্রে জানা গেছে, এলাকাবাসী ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির অধিকাংশ সদস্য অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনৈতিক কর্মকান্ডের কারণে অপসারণ এবং এর সাথে সংশ্লিষ্ট পরিচালনা কমিটির সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়ে বিয়ানীবাজার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌসুমী মাহবুব বরাবর লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন।
এ বিষয়ে বাউরভাগ আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ফজলুর রহমান বলেন, আমার বিদ্যালয়ের কোন শিক্ষক এই রকম কাজের সাথে জড়িত নয়। কিছু সার্থান্বেষী মহল বিষয়টি নিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে।
এ বিষয়ে বিয়ানীবাজার উপজেলা ভারপ্রাপ্ত প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা টিটু কুমার দে বলেন, ঘটনা শুনে আমি বিদ্যালয়ে গিয়ে উত্তপ্ত পরিস্থিতি শান্ত করে বিষয়টি সমাধানের চেষ্ঠা করি।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌসুমী মাহবুব বলেন আমার কাছে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নিবো।
লাউতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গৌছ উদ্দিন বলেন, বিষয়টি জানতে পেরে আমি বিদ্যালয়ে গিয়ে এলাকাবাসীকে সাথে নিয়ে পরিস্থিতি অনুকূলে নিয়ে আসি এবং বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করি।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন