আফগানিস্তান নিয়ে মতবিরোধে নিরাপত্তা উপদেষ্টাকে ট্রাম্পের অপসারণ

106
gb

মো:নাসির, বিশেষ প্রতিনিধি জিবি নিউজ ২৪

শান্তি পরিকল্পনার অংশ হিসেবে তালিবান প্রতিনিধিদের যুক্তরাষ্ট্রে আমন্ত্রণের পরিকল্পনা নিয়ে ট্রাম্প প্রশাসনে বিভাজনের খবরের মধ্যে তাকে চাকরিচ্যুত করা হল।   

২০১৮ সালের এপ্রিল থেকে দায়িত্ব পালন করে আসা জন বল্টন ছিলেন ট্রাম্পের তৃতীয় জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা। তার আগে এই পদ থেকে বিদায় নিতে হয়েছে মাইকেল ফ্লিন ও ম্যাকমাস্টারকে।

বল্টনের পদত্যাগের খবর জানিয়ে ট্রাম্প মঙ্গলবার এক টুইটে লেখেন, “গত রাতে আমি জন বল্টনকে বলেছি যে, হোয়াইটে হাউজে তার সেবা আর দরকার নেই। প্রশাসনের অনেকের মতো আমিও তার অনেক পরামর্শের বিষয়ে জোরাল আপত্তি জানিয়েছি। এবং সে কারণে আমি জনকে পদত্যাগ করতে বলেছি, যা তিনি সকালে আমাকে দিয়েছেন।”

আগামী সপ্তাহে নতুন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার নাম ঘোষণা করবেন বলে জানিয়েছেন ট্রাম্প।

সিএনএন বলছে, উত্তর কোরিয়া ও আফগানিস্তান বিষয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে মতবিরোধে জড়িয়েছিলেন জন বল্টন। গেল বছর ইরান পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ট্রাম্পের অবস্থান সমর্থন করে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার পদে এসেছিলেন তিনি।

এরমধ্যে মতবিরোধ এমন পর্যায়ে পৌঁছায় যে, বল্টন নেতৃত্বাধীন জাতীয় নিরাপত্তা পর্ষদের সদস্যদের সঙ্গে ট্রাম্প প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তাদের সম্পর্ক অনেকটা শত্রুতায় রূপ নেয় বলে হোয়াইট হাউজ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন