সৌদি বাদশার ছেলে হলেন জ্বালানি মন্ত্রী

37
gb

বিশেষ প্রতিনিধি জিবি নিউজ ২৪

সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ তার সন্তান প্রিন্স আব্দুল আজিজ বিন সালমানকে সৌদি আরবের নতুন জ্বালানি মন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন। সৌদি রাজকীয় এক ফরমানের বরাত দিয়ে সৌদি রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সৌদি প্রেস অ্যাজেন্সি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।


বিশ্বের শীর্ষ তেল রফতানিকারক দেশটির জ্বালানি মন্ত্রী হিসেবে এই প্রথম ক্ষমতাসীন আল সৌদ পরিবারের কোনো সদস্য নিয়োগ পেলেন।


জ্বালানি মন্ত্রী খালিদ আল-ফালিহকে সরিয়ে তার স্থলাভিষিক্ত হিসেবে নিয়োগ পাওয়া প্রিন্স আব্দুল আজিজ বিন সালমানের বিশ্বের জ্বালানি রফতারিকারক দেশগুলোর সংস্থা ওপেকে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতা রয়েছে। তেল খাতে তার কাজের অভিজ্ঞতা কয়েক দশকের।


ওপেকের নীতি-নির্ধারণী পর্যায়ের দীর্ঘ অভিজ্ঞতাসম্পন্ন প্রিন্স আব্দুল আজিজ দেশটির তেল নীতিতে কোনো ধরনের পরিবর্তন আনবেন না বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। বিশ্ব বাজারের ভারসাম্য বজায় রাখতে ও অপরিশোধিত তেল সরবরাহে ওপেকের সঙ্গে ওপেকের বাইরের দেশগুলোর সম্প্রতি একটি চুক্তি হয়। এই চুক্তি নিয়ে বোঝাপড়ায় পৌঁছাতে তিনি গুরুত্বপূর্ণ মধ্যস্থতাকারী হিসেবে কাজ করেন।


এর আগে ২০১৭ সালে সৌদি আরবের জ্বালানি কল্যাণ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পান তিনি। সেই সময় দেশটির তেলমন্ত্রী আলী আল-নাইমির ডেপুটি হিসেবে কাজ করেন তিনি। সৌদি এই প্রিন্স জ্বালানি মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব এমন এক সময় নিলেন; যখন তার ভাই ও সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান দেশটিতে অর্থনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংস্কারে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ উদ্যোগ নিয়েছেন।


ডালাসভিত্তিক তেল বিশ্লেষক আনাস আল হাজি বলেন, প্রত্যাশা করছি, সৌদির তেল নীতিমালায় পরিবর্তন আসবে না। কারণ এটা একজন ব্যক্তি কর্তৃক নির্ধারিত নয়। দেশটির নীতিমালা বেশ প্রতিষ্ঠিত।
gb
মন্তব্য
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More