ডিমলায় পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু,অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেলো দুইজন

102

মহিনুল ইসলাম সুজন,বিশেষ প্রতিনিধি॥

নীলফামারীর ডিমলায় আব্দুল মমিন (২) নামের এক শিশুর পুকুরের পানিতে ডুবে মৃত্যু হয়েছে।নিহত শিশু উপজেলার সদর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের উত্তর তিতপাড়া দিঘোলটাড়ী গ্রামের আমিনুল ইসলামের পুত্র।
শিশুটির পরিবার ও এলাকাবাসীর সুত্রে জানা যায়, শিশু মমিন শুক্রবার (২৩আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে খেলতে খেলতে সবার অজান্তে বাড়ির পাশে থাকা পুকুরে পড়ে যায়। বাড়ির লোকজন কেউ শিশুটিকে না দেখলেও শিশুটির একই বয়সের খেলার সাথী রিশামনি ও মসলেমা আক্তার পুকুরের পানিতে মমিনকে মুখ থুবড়ে পরে থাকা দেখে উদ্ধারের চেষ্টা করতে গিয়ে তারাও দুজনে পানিতে পরে যায়। পরে ওই দুই শিশুর আত্মচিৎকার শুনে এলাকাবাসী দৌড়ে এসে মমিনকে পানিতে ডুবে থাকা দেখতে পেয়ে তাকে সহ তিন শিশুকে দ্রুত উদ্ধার করে উপজেলা সরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে শিশু রিশামনি ও মশলেমা আক্তার প্রাণে বেঁচে গেলেও সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশু মমিনকে মৃত ঘোষনা করেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ডিমলা সদর ইউনিয়ন ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম সরকার বলেন,একই ঘটনার সময় অল্পের জন্য অপর দুই শিশু প্রানে বেচে গেলেও এক শিশু নিহত হয়।
এ বিষয়ে ডিমলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মফিজ উদ্দিন শেখ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শিশুটি পরিবারের সকলের অগোচরে বাড়ির পাশে খেলতে গিয়ে পুকুরের পানিতে পড়ে নিহত হয়েছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। সেই সাথে আরো দুই শিশু আহত হয়েছিল কিন্তু তারা প্রাণে বেঁচে গেছে। নিহত শিশুর পরিবার সহ কারো কোন অভিযোগ না থাকায় ইউপি চেয়ারম্যানের মাধ্যমে লাশ দাফনের অনুমতি দেয়া হয়।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন