পলাশবাড়ীতে ‘ভিজিএফ’ চাল বিতরন বিভিন্ন অনিয়ম

96
ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ
গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় অসহায়দের মধ্যে ভিজিএফ চাল বিতরনের অনিয়ামের অভিযোগ উঠেছে।
বুধবার (৭ আগষ্ট)  ভিজিএফ চাল বিতারন নানা অনিয়ম,দুর্নীতি, খেয়ালখুশি,স্বেচ্ছাচারিতা ও অব্যবস্থাপনার মধ্যদিয়ে চাল বিতরণ করা হয়েছে।
বিতরনের স্টাইল ছিল হ-য-ব-র-ল।
পলাশবাড়ী ৯ টি ইউনিয়নের ন্যায় পবনাপুর ইউনিয়নেও প্রতি কার্ডধারীদের মাঝে ১৫ কেজি চাল বিতরনের কথা।কিন্তু এর স্থলে বিতরণ করা হয়েছে সর্বোচ্চ ১০ থেকে ১২ কেজি চাল।বিতরণ স্থল ইউপি ভবন কার্যালয়।সমেবেত সুবিধাভোগী নারী-পুরুষের প্রতি স্লিপের বিপরীতে বিতরণকৃত চাল ছিল প্রায় খাবার অনুপযোগী।
৭ নং পবনাপুর ইউপি চেয়ারম্যান শাহ আলম ছোট বাবা এবং সংশ্লিষ্ট রিলিফ অফিসার(ট্যাগ) উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার(এটিও)মিজানুর রহমান সার্বক্ষণিক নিয়োজিত থাকার কথা থাকলেও রহস্যজনক কারনে তারা কেউই সেখানে ছিলেন না। চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত কথিত সহকারী আলমগীর তার একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তারের মাধ্যমে সুবিধা- ভোগিদের মাঝে এসব চাল বিতরণ করছেন।
প্রতি কার্ডধারীদের দেযা চাল হয়েছে সর্বোচ্চ ১০ কেজি।আবার প্রতি দুইজন কার্ডধারীদের একত্রে ৩০ কেজির একটি চালের বস্তা দেয়া হলেও তা পরিমাপ করে সর্বোচ্চ পাওয়া যায ২০ থেকে ২২ কেজি।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে ভূক্তভোগি দুঃস্থরা জানান বিতরণের আগের রাতে ইউপি ভবনে মজুদকৃত ৩০ কেজি ওইসব চালের বস্তা থেকে বিশেষ কৌশলে চাল বের করে নেয়া হয়েছে।ফলে বিতরণকৃত চালের বস্তায় চাল কম পাওয়া যায়।