রিফাত আরও ৭ দিনের রিমান্ডে, হত্যার দায় স্বীকার সায়মুনের

216

বরগুনায় রিফাত শরীফ হত্যা মামলার অন্যতম আসামি রিফাত ফরাজীকে আরও ৭ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

সন্দেহভাজন আসামি কামরুল হাসান সায়মুন সোমবার বিকালে রিফাত হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বরগুনা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. হুমায়ুন কবির এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, সোমবার বিকাল ৫টার দিকে রিফাত ফরাজী ও কামরুল হাসান সায়মুনকে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজীর আদালতে হাজির করা হয়েছিল।

পুলিশ কর্মকর্তা আরও জানান, দুই দফায় ১৪ দিনের রিমান্ড শেষ হওয়ায় রিফাত ফরাজীকে আরও ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করার জন্য বিচারকের কাছে আবেদন করা হয়। বিচারক তার ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

অপরদিকে কামরুল হাসান সায়মুনকে চার দফায় ১৬ দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

সোমবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে রিফাত হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে সায়মুন। এখন পর্যন্ত রিফাত হত্যা মামলার ১০ জন আসামি হত্যার দায় স্বীকার করেছে।

গ্রেফতার হওয়া বাকি ৩ জন আসামি রিমান্ডে রয়েছে। মামলার এজাহারভুক্ত ৫ জনকে এখনো পুলিশ গ্রেফতার করতে পারেনি।

গত ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের প্রধান গেটের সামনে ঘাতকেরা স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির সামনে প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে রিফাত শরীফকে।

গুরুতর আহত রিফাতকে এদিন বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে বিকাল ৪টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এ ঘটনায় রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বাদী হয়ে ১২ জনকে আসামি করে বরগুনা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।