আজ বার্মিংহামে জিতলে শেষ চারের টিকিট হাতে পেয়ে যাবে বিরাট কোহলিরা

86

জিবি নিউজ 24 ডেস্ক//

বিশ্বকাপে একটা হাত দিয়েই রেখেছিল ইংল্যান্ড! তারা হট ফেভারিট ছিল প্রায় সব কিংবদন্তির। সেই এউইন মরগানদের সেমিফাইনাল নিশ্চিত নয়। আজ বার্মিংহামে ভারতের কাছে হারলে হৃদয়ে রক্তক্ষরণ নিয়ে ছিটকে যেতে হতে পারে সেমির আগে। ভারতও তৈরি ইংল্যান্ডের বুকে ছুরি চালাতে। গত দুই ম্যাচে ৮ উইকেট নেওয়া মোহাম্মদ সামি প্রত্যয়ী নিজেকে আরো একবার মেলে ধরতে, ‘ইংল্যান্ডের শক্তি মূল্যায়ন করে আমার কোনো সুবিধা হবে না। নিজের পরিকল্পনা মাঠে প্রয়োগ করতে পারলে বিপক্ষের সামনে পাল্টা চ্যালেঞ্জ তৈরি হয়। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সেটাই করতে চাই। ওদের দলের কোন ব্যাটসম্যান কেমন, এসব নিয়ে ভাবছি না।’

ছয় ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে সেমিফাইনালে একটা পা দিয়ে রেখেছে ভারত। আজ বার্মিংহামে জিতলে শেষ চারের টিকিট হাতে পেয়ে যাবেন বিরাট কোহলিরা। স্বাগতিকরা হারলে শেষ চারের দুয়ার উন্মুক্ত হয়ে যাবে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার জন্য। ম্যাচটিতে চোখ তাই উপমহাদেশের সব দলের। সাত ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে ইংল্যান্ড আপাতত চার নম্বরে। আজ হারলে সেমিফাইনালের পথটা পিচ্ছিল হয়ে পড়বে যথেষ্ট। ফেভারিট হয়ে শুরু করার পর নেতানো ক্রিকেট নিজেদের কাজ কঠিন করে ফেলায় জিওফ্রি বয়কট, মাইকেল ভন, মাইক আথারটন, কেভিন পিটারসেনরা একহাত নিয়েছেন ইংলিশদের। এটাই মানতে না পেরে জনি বেয়ারস্টোর ক্ষোভ, ‘লোকে চায় আমরা যেন হারি, তাহলেই ওরা আমাদের টুঁটি চেপে ধরতে পারবে। এটাই ইংরেজদের স্বভাব।’

বেয়ারস্টোর এমন মন্তব্যে তোলপাড় ইংলিশ ক্রিকেট। খোদ মাইকেল ভন পাল্টা দিয়েছেন বেয়ারস্টোকে, ‘ইংল্যান্ডের এই দলটকে সমর্থন করা হচ্ছে না, একেবারে বাজে কথা এটা। এমন সমর্থন আগে কখনো পায়নি ওরা।’ বেয়ারস্টোর সঙ্গে একমত নন খোদ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান জস বাটলার। দল হারতে থাকলে সমালোচনা হজম করার পক্ষে তিনি, ‘আমাদের দলটা খুভ ভালো। দেশবাসীর প্রত্যাশাও বেশি। ধাক্কা খাওয়ার হতাশা থেকে অনেকে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। খারাপ খেললে বাইরের এমন চাপ থাকবেই। তবে আমার মনে হয় এবার সবাই আমাদের সমর্থন করছেন।’

বাঁচা-মরার ম্যাচের আগে এমন অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি কাম্য নয় কারো। এর মাঝেই স্বস্তির খবর, চোট কাটিয়ে আজ ফিরছেন ওপেনার জেসন রয়। শুক্রবার নেটে স্বাচ্ছন্দ্য ছিলেন তিনি। বাংলাদেশের বিপক্ষে ১৫০-র বেশি রানের ইনিংস খেলা এই ওপেনারের চোট ভুগিয়েছে গোটা দলকে। তাঁর জায়গায় খেলতে নামা জেমস ভিনস পারেননি প্রত্যাশা মেটাতে। রয়কে ফিরে পাওয়াটা আত্মাবিশ্বাস বাড়াবে ইংল্যান্ডের। জোফ্রা আর্চার চোট নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে করতে পারেননি তেমন কিছু। তাঁর সেরাটার প্রত্যাশাতেও আছে স্বাগতিকরা।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন