১৬ বছর পর সম্মেলন অনুষ্ঠিত চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা যুবলীগ নেতৃত্তে নতুন মুখ:সভাপতি লিটন,সম্পাদক বাবু

161

জাকির হোসেন পিংকু,চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:
২০০৩ সালে শেষবার অনুষ্ঠানের দীর্ঘ ১৬ বছর পর বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ,চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলনের পর অনুষ্ঠিত কাউন্সিলে গোপন ভোটে নতুন নেতৃত্ব উঠে এসেছে। সামিলউল হক লিটন সভাপতি (৯৬ ভোট) ও আমানুল্লাহ বাবু সাধারণ সম্পাদক (৯২ ভোট) পদে নির্বাচিত হয়েছেন। এর আগে গত বৃহস্পতিবার (২৭’জুন) দুপুর দেড়টায় নবাবগঞ্জ সরকারী কলেজ শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে সম্মেলন উদ্বোধন করেন যুবলীগ কেন্দ্রীয চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী এমপি।
জেলা যুবলীগ বিদায়ী সভাপতি মাসিদুর রহমানের সভাপতিত্বে ও বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক শহীদুল হুদা অলকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন আ’লীগ কেন্দ্রীয যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও যুবলীগ সাবেক কেন্দ্রীয চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির নানক। প্রধান বক্তা ছিলেন যুবলীগ কেন্দ্রীয সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আ’লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মঈনুদ্দীন মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ আব্দুল ওদুদ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ (শিবগঞ্জ) আসনের সাংসদ ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল, চাঁপাইনবাবগঞ্জের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ ফেরদৌসী ইসলাম জেসী। এছাড়াও বক্তব্য দেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ এবং জেলা আ’লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
বক্তরা দেশের স্বাধীনতার পরপরই ১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধুর নির্দের্শে শেখ ফজলুল হক মনি’র হাত ধরে যুবলীগ গঠনের প্রেক্ষাপট তুলে ধরেন। তারা বাংলাদেশের রাজনীতিতে যুবলীগের ভূমিকা ও গুরুত্ব নিয়েও আলোচনা করেন। বক্তরা বিগত সংসদ নির্বাচনে দেশে আ’লীগ প্রার্থীদের জয় জয়কার হলেও চাঁপাইনবাবগঞ্জের তিনটি আসনের মদ্যে দুটি আসনে আ’লীগ প্রার্থীদের পরাজয়কে লজ্জাজনক বলে আখ্যায়িত করেন। তারা বলেন, এর দায় যুবলীগও এড়িয়ে যেতে পারে না।
সম্মেলনের দ্বিতীয় পর্বে সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে শহরের টাউন ক্লাবে কাউন্সিল অধিবেশন বসে। জেলা যুবলীগের ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠনের জন্য যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে ২২১ কাউন্সিলরদের প্রত্যক্ষ ভোটে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। রাত সোয়া ৮টার দিকে ফলাফল ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ। বিজয়ী সভাপতি,সাধারণ সম্পাদককে আগামী ১ মাসের মধ্যে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের নির্দেশণা দেয়া হয়েছে।
সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন কাউন্সিলে সভাপতি পদে অপর দুই প্রার্থী বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক শহীদুল হুদা অলক ৬৬ ও বিদায়ী সভাপতি মাসিদুর রহমান ৫২ ভোট পান। অন্যদিকে সাধারণ সম্পাদক পদের অপর তিন প্রার্থীর মধ্যে সাকিউল ইসলাম সাকিল ৬১,জিয়াউর রহমান তোতা ৫৮ ও মনিরুল ইসলাম কাজল ০২ ভোট পান। ##