শীর্ষ ৩০০ ঋণখেলাপির নাম ও ঠিকানা প্রকাশ

66

দেশের শীর্ষ ৩০০ ঋণখেলাপি ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নাম-ঠিকানা প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

গতকাল শনিবার জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তর পর্বে নওগাঁ-৬ আসনের সংসদ সদস্য মো. ইসরাফিল আলমের উত্থাপিত এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী এ তথ্য জানান।

অর্থমন্ত্রী বলেন, তালিকায় উল্লিখিত এই ৩০০ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে তা আর পরিশোধ করেননি।

তিনি আরও তথ্য দেন, বিভিন্ন ব্যাংক থেকে নেয়া ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানের মোট ঋণের পরিমাণ ৭০ হাজার ৫৭১ কোটি টাকা। এর মধ্যে খেলাপি রয়েছে ৫০ হাজার ৯৪২ কোটি টাকা।

এর পর সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য বেগম লুৎফুন নেসা খানের টেবিলে উত্থাপিত অপর এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী জানান, বাংলাদেশের সব তফসিলি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ঋণখেলাপির সংখ্যা এক লাখ ৭০ হাজার ৩৯০ জন এবং অর্থের পরিমাণ এক লাখ দুই হাজার ৩১৫ কোটি ১৯ লাখ টাকা।

এদিকে জাতীয় সংসদে ঋণখেলাপিদের তালিকা প্রকাশ করার বিষয়টিকে স্বাগত জানিয়েছেন দেশের খ্যাতিমান অর্থনীতিবিদ ও ব্যাংকাররা।

তারা বলেছেন, শুধু সংসদে তালিকা প্রকাশ করলেই হবে না, খেলাপিদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থাও নিতে হবে। ঋণখেলাপিদের সামাজিকভাবে বর্জন করতে হবে।

বিশ্বব্যাংকের ঢাকা অফিসের লিড ইকোনমিস্ট ড. জাহিদ হোসেন যুগান্তরকে বলেন, জাতীয় সংসদে শীর্ষ ৩০০ ঋণখেলাপির নাম প্রকাশ নিঃসন্দেহে ইতিবাচক একটি ঘটনা। তবে এটি শুধুই প্রাথমিক একটি উদ্যোগ। এখানেই থেমে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। খেলাপিদের বিরুদ্ধে যেহেতু সরকার অবস্থান নিয়েছে, এটি এখন শেষ করতে হবে। এদের বিরুদ্ধে আরও পদক্ষেপ নিতে হবে। সামাজিকভাবে বর্জন করতে হবে।

শীর্ষ ৩০০ ঋণখেলাপির তালিকা:

https://drive.google.com/file/d/1JxeLFIiTUUUFYjRjPExTvEhD1Kn_Qkx8/view

 

মন্তব্য
Loading...