অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিজেদের সেরাটা দিতে হবে : মাশরাফি

63

টনটনে রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে ওয়েস্টইন্ডিজকে হারিয়ে ফুরফুরে মেজাজে রয়েছে টাইগাররা। ৩২২ রানের টার্গেট তাড়া করে জয়ের সুখস্মৃতি নিয়ে বৃহস্পতিবার এবারের বিশ্বকাপের ফেভারিট অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামছে বাংলাদেশ।

নটিংহ্যামে খেলা হবে বিকাল সাড়ে ৩টায়। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে জয়ের সুবাদে শেষ চারে খেলার সম্ভাবনা উজ্জ্বল করেছে বাংলাদেশ। পাঁচ ম্যাচে ৫ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছেন টাইগাররা। তারা দুটি ম্যাচ জিতে, একটিতে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেছে। আর দুটি ম্যাচ হেরেছে। সমান ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে অস্ট্রেলিয়া।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলাটা সহজ হবে না। নটিংহ্যামে ব্যাটিং সহায়ক পিচে অস্ট্রেলিয়ার বিধ্বংসী ব্যাটসম্যানরা বাংলাদেশ বোলারদের পেয়ে বসার চেষ্টা করবে। তাই মানসিকভাবে সেই প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে মাশরাফিরা।

এ বিষয়ে সোমবার রাতে টনটনে ম্যাচশেষে সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেন, ‘নটিংহ্যামের উইকেট কিছুটা ব্যাটিং সহায়ক। সে পরিকল্পনা নিয়েই খেলতে হবে আমাদের। তবে বিশ্বকাপে কোনো ম্যাচই সহজ নয়। শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচ না হওয়াটা আমাদের জন্য কিছুটা ক্ষতি হয়েছে। তাই অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে নিজেদের সেরাটা দিয়ে খেলতে হবে।’

এদিকে মাশরাফির পুরনো চোট টনটনেও দেখা দেয়। বাংলাদেশ ইনিংস শুরুর আগে ড্রেসিংরুমে বসে শুশ্রূষা নিতে হচ্ছিল মাশরাফিকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ইনিংস চলার সময়ই মাঠ থেকে বেরিয়ে যেতে হয়েছিল তাকে। ঠিক কী সমস্যা হচ্ছিল, সেটি পরিষ্কার করে বলেননি মাশরাফি। তবে সমস্যাটা যে হ্যামস্ট্রিংয়ের কারণেই সেটি স্বীকার করেছেন। তবে মাঠ থেকে উঠে গেলেও পর্যাপ্ত বিকল্প বোলার থাকায় চাপ নেননি মাশরাফি।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে বোলিংয়ে মাশরাফির মূল অস্ত্র হবে মোস্তাফিজ। গত ম্যাচও মোড় ঘুরিয়েছিলেন কার্টার মাস্টার মোস্তাফিজ। পরে সাকিব আল হাসান ও লিটন দাসের দায়িত্বশীল ও দৃষ্টিনন্দন ব্যাটিংয়ের উপর ভর করে বাংলাদেশ ম্যাচ জিতে।

মন্তব্য
Loading...