সৌদির কাছে ট্রাম্পের অস্ত্র বিক্রি বাধা দিতে চাচ্ছেন সিনেটররা

যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাট সিনেটররা বলেছেন, সৌদি আরবের কাছে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অস্ত্র বিক্রি বন্ধ করতে ২২টি ভিন্ন ভিন্ন যৌথ প্রস্তাব পাশ করার চেষ্টা করে যাবেন তারা।-খবর রয়টার্সের

বুধবার তারা বলেন, যদি এসব প্রস্তাব পাশ করা সম্ভব হয়, তবে কংগ্রেসের পুনর্বিবেচনা ছাড়া সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে আটশ কোটি ডলারের অস্ত্র বিক্রির পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পারবেন না ডোনাল্ড ট্রাম্প।

সিনেটররা বলেন, বিদেশি সরকারের কাছে অস্ত্র বিক্রি অনুমোদনে কংগ্রেসের ভূমিকা পুনর্প্রতিষ্ঠা ও সুরক্ষার উদ্দেশ্যেই এই প্রস্তাবগুলো উপস্থাপন করা হয়েছে।

ইরানের ক্রমবর্ধমান হুমকি এমন এক জরুরি অবস্থা তৈরি করেছে, যাতে সৌদি আরব, আরব আমিরাত ও লেবাননের কাছে প্রিসিজন-গাইডেড মিউনিশন বা সুনির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুতে হামলায় সক্ষম যুদ্ধাস্ত্র, বিমান ইঞ্জিন, মর্টার ও অন্যান্য অস্ত্র বিক্রিতে আইনপ্রণেতাদের পুনর্বিবেচনা এড়িয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। গত মাসে এই ঘোষণা আসার পর কংগ্রেস ক্ষিপ্তভাবে তা প্রত্যাখ্যান করেছে।

সিনেটর বব মেনানডেজ বলেন, প্রেসিডেন্ট ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী মার্কিন অস্ত্রবিক্রির পুনর্বিবেচনা ও পর্যালোচনায় কংগ্রেসের ক্ষমতা খর্ব করবে, আর আমরা চেয়ে চেয়ে দেখবো তা হবে না। কাজেই এক্ষেত্রে আমরা যে বসে নেই, তা দেখাতেই এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

বব মেনেনডেজ ও রিপাবলিকান লিন্ডসে গ্রাহাম ওই উদ্যোগ নিয়েছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ মিত্র গ্রাহাম সৌদি আরবের মানবাধিকার লঙ্ঘনের কঠোর সমালোচক।

গত কয়েক মাস ধরে সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে সামরিক অস্ত্র বিক্রি বন্ধ রাখছেন কংগ্রেস সদস্যরা। ইয়েমেনে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের বিমান হামলায় অসংখ্য বেসামরিক লোক নিহত হওয়ার ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে কংগ্রেস এসব উদ্যোগ নিচ্ছে।

এক বিবৃতিতে গ্রাহাম বলেন, যখন আমরা বুঝতে পারছি, সৌদি আরব আমাদের কৌশলগত মিত্র, কাজেই দেশটির যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের আচরণ অবজ্ঞা করতে পারি না। সৌদি আরবের সঙ্গে সচরাচর যে ব্যবসা করি, এখন সেই সময় না।

কাজেই এই প্রস্তাবগুলোতে জোরালো দ্বিদলীয় সমর্থন পাবেন বলে তিনি আশা করছেন।

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন তবে আপনি চাইলে অপ্ট-আউট করতে পারেন Accept আরও পড়ুন