চাঁপাইনবাবগঞ্জ মরদেহ ফেরত দেয়নি বিএসএফ ভোলাহাট সীমান্তে বিএসএফ’র গুলিতে এক বাংলাদেশী নিহত: বিজিবি’র কড়া প্রতিবাদ

36

জাকির হোসেন পিংকু,চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:
চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলার গিলাবাড়ি সীমান্তে বিএসএফ’র গুলিতে জাহিরুল ইসলাম(২২) নামে এক বাংলাদেশী নিহত হয়েছেন। তিনি উপজেলার ফুটানীবাজার হোসেনভিটা গ্রামের এনামুল হক ওরফে এনা মিয়া’র ছেলে। বিজিবি ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মঙ্গলবার ভোর সাড়ে চারটার দিকে আম বাগান ঘেরা সীমান্তের ২০০ নং মেইন আন্তর্জাতিক সীমান্ত পিলারের নিকট জাহিরুলকে গুলি করে হত্যা করে ৪৪’বিএসএফ ব্যাটালিয়নের কৃষ্টপুর ক্যাম্পের সদস্যরা। পরে বেলা ১১টার দিকে জাহিরুলের মরদেহ ভারতের অভ্যন্তরে নিয়ে যায় বিএসএফ।
এ ঘটনায় বিজিবি বিএসএফ’র নিকট লিখিত ও মৌখিকভাবে কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছে।
বিজিবি জানিয়েছে, মঙ্গলবার ভোরে একদল চোরাকারবারী শূন্য লাইন অতিক্রম করে সীমান্তে তারকাঁটার বেড়া কাটার চেষ্টা করলে গুলি করে বিএসএফ। এসময় ভারতের প্রায় ১শ’ গজ ভেতরে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয় জাহিরুল। সকাল ৯টার পরে ওই সীমান্তে উপস্থিত হন চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৫৯’বিজিবি ব্যাটালিযন অধিনায়ক লে.কর্ণেল মাহমুদুল হাসান। তিনি সীমান্তে তাৎক্ষনিক অনুষ্ঠিত বৈঠকে ৪৪’বিএসএফ ব্যাটালিয়ন কমান্ড্যান্ট শ্রী কেশরের নিকট প্রতিবাদ জানান। এরপর ময়নাতদন্ত ও আনুসাঙ্গিক আনুষ্ঠানিকতার জন্য মরদেহ ভারতের ভেতরে নিয়ে যায় বিএসএফ। তবে মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত জাহিরুলের মরদেহ ফেরত দেয়নি বিএসএফ। ###

মন্তব্য
Loading...