ইন্দোনেশিয়ায় নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতায় নিহত ৬

45

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট পদে ৫৫ দশমিক ৫ শতাংশ ভোট পেয়ে আবারও জয়ী হয়েছেন জোকো উইদোদো।

জোকো উইদোদোর জয়ের পর বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ শুরু করেছেন বিরোধী সমর্থকরা। এতে সহিংসতায় অন্তত ছয়জন নিহত ও আহত হয়েছেন আরও দুই শতাধিক লোক।

বুধবার জাকার্তার গভর্নর অ্যানিস ব্যাসেডেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। খবর আনাদোলু ও রয়টার্সের।

তিনি বলেন, নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর রাজধানী ও এর পার্শ্ববর্তী এলাকায় থাকাপুলিশের চেকপোস্টসহ বিভিন্ন যানবাহনে আগুন লাগিয়ে দেন বিরোধী সমর্থকরা। পরে পুলিশের সঙ্গে বিরোধীদের সংঘর্ষ হয়। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় ২০ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

এদিকে ভোট গণনা শেষে মঙ্গলবার ইন্দোনেশিয়ার নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, নির্বাচনে ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট জোকো নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন। অন্যদিকে প্রধান বিরোধী পারাবোয়ো সুবিয়ান্তো পেয়েছেন ৪৪ দশমিক ৫ শতাংশ ভোট।

সহিংসতার আশঙ্কায় পূর্বঘোষিত সময়ের একদিন আগেই ফল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

অন্যদিকে ফল ঘোষণা কেন্দ্র করে অনাকাঙ্ক্ষিত যেকোনো পরিস্থিতি সামাল দিতে রাজধানী জাকার্তাজুড়ে নিরাপত্তা বাহিনীর প্রায় ৩২ হাজার সদস্য মোতায়েন করা হয়।

তবে নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়েছে বলে জানিয়েছেন পর্যবেক্ষকরা। স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ে ২০ হাজার জনপ্রতিনিধি নির্বাচনের উদ্দেশে গত ১৭ এপ্রিল দেশব্যাপী ওই ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ইন্দোনেশিয়ায় মোট ভোটারের সংখ্যা ১৯ কোটি ২০ লাখ।

মন্তব্য
Loading...