মাদ্রাসাছাত্রীকে মুখে রুমাল চেপে তুলে নিয়ে ধর্ষণ

86

জিবি নিউজ টুয়েন্টিফোর ডট কম।।

ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলায় অষ্টম শ্রেণির এক মাদ্রাসাছাত্রীকে (১৩) ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গতকাল রোববার বিকেলে উপজেলার সাতুরিয়া গ্রাম থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা হলো উপজেলার নৈকাঠী গ্রামের ভাড়ায়চালিত মোটরসাইকেল চালক মো. নূর আলম (২৪) ও বোর্ড অফিস এলাকার মো. রাকিব হোসেন (১৯)।

এ ঘটনায় ওই মাদ্রাসাছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে রাজাপুর থানায় মামলা করেন।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, গত রোববার সকাল ১০টার দিকে এক বান্ধবীর বাড়ি থেকে ফিরছিল ওই ছাত্রী। ফেরার সময় বোর্ড অফিস এলাকায় তার মুখে রুমালচাপা দিয়ে পাশেই রাকিবের বাসায় নিয়ে যায় নূর আলম ও রাকিব। রাকিবের বাসায় কেউ না থাকায় সেখানে নূর আলম ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। ধর্ষণে সহায়তা করে রাকিব।

সেখান থেকে বেরিয়ে ওই ছাত্রী বিষয়টি তার পরিবারকে জানায়। পরে ছাত্রীর বাবা স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানের কাছে বিষয়টি জানালে তিনি পুলিশকে অবহিত করেন।

পুলিশ অভিযান চালিয়ে গতকাল দুপুরে নূর আলমকে গ্রেপ্তার করে। এরপর বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে রাকিবকেও গ্রেপ্তার করে।

ঝালকাঠির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (রাজাপুর সার্কেল) মো. সাখাওয়াত হোসেন জানান, এ ঘটনায় ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। ওই মাদ্রাসাছাত্রীকে পুলিশি হেফাজতে রাখা হয়েছে। গ্রেপ্তার হওয়া দুজন ঘটনার সঙ্গে তাদের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছে।

মন্তব্য
Loading...