একগুঁয়েমির কারণে ধ্বংসের পথে পাট ও পাট শিল্প : বাংলাদেশ ন্যাপ

28

 

পাটকল শ্রমিকদের বকেয়া ২৫ এপ্রিলের মধ্যে পরিশোধের প্রতিশ্রুতি দিয়েও তা বাস্তবায়নের কোনো উদ্যোগ গ্রহন না করায় গভীর উদ্বেগ ও উৎকন্ঠা প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।

মঙ্গলবার গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় অবিলম্বে পাটকল শ্রমিকদের ৯ দফা দাবির সুরাহা করা আহ্বকান জানিয়ে বলেন, পাটকল করপোরেশন কর্তৃপক্ষের একগুঁয়েমি ও খামখেয়ালির কারণে ধ্বংসের পথে দেশের ঐতিহ্যবাহী পাট ও পাটশিল্প।

নেতৃদ্বয় অবিলম্বে শ্রমিকদের ন্যায্য দাবি ঘোষিত মজুরি কমিশন প্রদান, বকেয়া বেতন পরিশোধ, পাটখাতে বরাদ্দ বৃদ্ধিসহ ৯ দফা দাবি মেনে নেয়ার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান।

তারা বলেন, রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল কেন বছরের পর বছর লোকসান দিচ্ছে এর কারণ খুজে বের করতে হবে ও এর জবাব সরকারকেই দিতে হবে। মাথাভারী আমলা-প্রশাসন পোষা, সময় মতো অর্থ ছাড় না করে অসময়ে পাট কেনা, পুরানো যন্ত্রপাতি নবায়ন ও আধুনিকায়ন না করাসহ নানা দুর্নীতি অনিয়মই যে লোকসানের কারণ তা বিভিন্ন সময়ে আলোচনায় আসলেও এ সমস্যা নিরসনে সরকারের কোনো উদ্যোগ নেই।

নেতৃদ্বয় উপরোক্ত সমস্যা দূর করে লোকসান বন্ধ ও শ্রমিকদের মজুরিসহ ন্যায়সঙ্গত দাবি মেনে নেয়ার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান।

তারা বলেন, পাটকল করপোরেশন গত ২৫ এপ্রিলের মধ্যে শ্রমিকদের বকেয়া সপ্তাহ পরিশোধ এবং মজুরি কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নের অঙ্গীকার করে। তবে কোনো প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন না হওয়ায় ১ রমজান থেকে পাটকল শ্রমিকরা কাজ বন্ধ রেখে রাস্তায় অবস্থান করছেন এবং সড়কেই ইফতার করছেন। পাটকল শ্রমিকদের নয় দফা মেনে নিয়ে এ শিল্পের অসন্তোষ দূর করার জন্য সরকারকে উদ্যোগ নিতে হবে।

মন্তব্য
Loading...