সৌদি আরবে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় আটক ১৩

54

সৌদি আরবের নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্যবস্তু বানিয়ে হামলা চালানোর পরিকল্পনার ঘটনায় ১৩ জনকে আটক করা হয়েছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থার এসপিএর খবরে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

এসপিএ জানিয়েছে, বিবৃতিতে আটক ব্যক্তিদের নাম ও পরিচয়পত্র প্রকাশ করা হয়েছে।

জুলফিতে হামলাকারীদের বাড়িতে অভিযান চালালে বিস্ফোরক বেল্ট উদ্ধার করা হয়েছে।

এর আগে রাজধানী রিয়াদে একটি পুলিশ ফাঁড়িতে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় দায় স্বীকার করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট। তবে এ হামলা প্রতিহত করা হয়েছে বলে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।

আরব নিউজের খবরে বলা হয়েছে, উত্তর রিয়াদে এ হামলায় ভারী অস্ত্রসমৃদ্ধ চার হামলাকারী নিহত হয়েছেন। তারা সৌদি নাগরিক ছিলেন।

নিহতরা হলেন- আবদুল্লাহ হামুদ আল হামুদ, আবদুল্লাহ ইব্রাহীম আল মানসুর, সামের আবদুল আজিজ আল মাদিদ ও সালমান আবদুল আজিজ আল মাদিদ।

সামাজিকমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, নিহতদের হাতে মেশিন গান, বোমা ও মলোটভ ককটেল ছিল।

সন্দেহভাজন হামলাকারীরা একটি গাড়িযোগে রিয়াদ থেকে ২৫০ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত সাধারণ তদন্ত পরিদফতরের প্রধান ফটকে হামলার চেষ্টা করেছে। কিন্তু নিরাপত্তা বাহিনী প্রতিহত করলে তারা ভেতরে ঢুকতে পারেননি।

সাধারণ তদন্ত পরিদফতরকে মাবাহিত নামেও ডাকায়। মূলত অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার বিষয়টি তারা দেখে থাকে। তাদের রাষ্ট্রীয় গোপন পুলিশ বাহিনী হিসেবেও বিবেচনা করা হয়ে থাকে।

আল আরাবিয়ার খবরে বলা হয়েছে, পরে দুপক্ষের বন্দুকযুদ্ধে হামলাকারীরা নিহত হয়েছেন।

এর আগে চলতি মাসের শুরুতে একটি হামলার চেষ্টা করা হলে দুই সন্ত্রাসীকে হত্যা করার কথা জানিয়েছে সৌদি আরব। এ ঘটনায় আরও দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

২০০০ সালের শুরুর দিকে সৌদি আরবে বিদ্রোহীদের হামলার পর দেশটিতে সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান বেড়ে গেছে। গত কয়েক বছরে বড় কোনো হামলার কথা শোনা যায়নি।

মন্তব্য
Loading...