কেমোথেরাপি নিতে সিঙ্গাপুরে রুবেল, ফেসবুকে আক্ষেপ ঝরা স্ট্যাটাস

43

গেল মাসে সিঙ্গাপুরের বিখ্যাত মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে ব্রেন টিউমারের অস্ত্রোপচার করান মোশাররফ হোসেন রুবেল। অস্ত্রোপচার সফল হলেও টিউমারের পুরো অংশ অপসারণ করা সম্ভব হয়নি। তাই এখন তাকে কেমোথেরাপি ও রেডিওথেরাপি নিতে হচ্ছে।

ফলে ফের সিঙ্গাপুর গেছেন রুবেল। নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে খোদ তিনি নিজেই এ তথ্য জানিয়েছেন। এক স্ট্যাটাসে লিখেছেন- কেমোথেরাপি ও রেডিওথেরাপি নিতে সিঙ্গাপুরে এসেছি। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন।

পাশাপাশি তাতে আক্ষেপও ঝরেছে। এই চিকিৎসা সম্পন্ন করতে প্রায় দেড় মাস সেখানে থাকতে হবে রুবেলকে। থেরাপি ঠিকভাবে না নিলে আবারও জেগে উঠতে পারে টিউমার। হতে পারে ক্যান্সারও। তাই তার জন্য সামনের দিনগুলো বেশ গুরুত্বপূর্ণ।

এরই মাঝে শুরু হবে বিশ্বকাপ। মূলত এ নিয়েই আক্ষেপ ঝরেছে তার কণ্ঠে। এবার বিশ্বকাপটা মাঠে বসে দেখার কথা ছিল ৩৭ বছর বয়সী ক্রিকেটারের। তবে চিকিৎসা নিতে সিঙ্গাপুরে থাকায় তা আর সম্ভব হচ্ছে না।

ফেসবুকের ওই স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন- এবারের বিশ্বকাপ মাঠে বসে দেখার খুব ইচ্ছা ছিল। বিপিএলের সময় সাইফউদ্দিন বলেছিল- যদি বিশ্বকাপ দলে থাকি তা হলে সব ম্যাচের টিকিট আপনাকে দেব। ইচ্ছা আর বাস্তবতা কখনও কখনও এক হয় না। এটি জানা ছিল। কিন্তু বাস্তবতা যে কতটা নিষ্ঠুর হতে পারে এটি কল্পনাতেও আসেনি!

তবে বিশ্বকাপে মাঠে গিয়ে দলকে সমর্থন জানানো সম্ভবপর না হলেও শুভকামনা জানিয়েছেন মোশাররফ। জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার একই স্ট্যাটাসে লেখেন- অল দ্য বেস্ট টিম বাংলাদেশ… ইনশাআল্লাহ ভালো কিছু হবে এবার।

গেল ১০ মার্চ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করাতে গিয়ে রুবেল জানতে পারেন তার ব্রেনে গ্লিওমা টিউমার হয়েছে। এ ধরনের টিউমার সাধারণত মস্তিষ্কের কোষ কিংবা মেরুদণ্ড থেকে জন্ম নেয়। পুরো চিকিৎসা প্রক্রিয়ায় প্রায় ৪০ লাখ টাকা খরচ হবে। বিসিবি, সতীর্থ, ক্রিকেটপাড়ার অনেকের সহায়তায় অর্থ জোগাড়ের পর কালবিলম্ব না করে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হন। উন্নত চিকিৎসার জন্য যান সিঙ্গাপুরে। সেখানে বিখ্যাত নিউরো সার্জন এলভিন হংয়ের তত্ত্বাবধানে সফল অস্ত্রোপচার হয়।

জাতীয় দলের হয়ে এখন পর্যন্ত ৫টি ওয়ানডে খেলেছেন মোশাররফ। তার নামের পাশে রয়েছে ৪ উইকেট। সেরা বোলিং ফিগার ২৪ রানে ৩ উইকেট। ২০০৮ সালের ৯ মার্চ চট্টগ্রামে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেক হয় তার। আর ২০১৬ সালের ৭ অক্টোবর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সবশেষ ওয়ানডে খেলেন তিনি।

তবে রুবেল সেই ২০০০-০১ থেকে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলে আসছেন। সবশেষ বিপিএলে একটি ম্যাচ খেলা ৩৭ বছর বয়সী বোলার ১১২টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন।

মন্তব্য
Loading...