যে কারণে ভোট দিতে পারছেন না আলিয়া

113

নির্বাচনের আমেজে সরগরম ভারতে। ইতিমধ্যে প্রথম দফা ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে।

এ যাত্রায় পার পেয়ে গেছেন ক্ষমতাসীন দল বিজেবি। আসছে ১৮ তারিখ দ্বিতীয় দফা ভোটগ্রহণ চলবে। ভারতের লোকসভা সরগরম নির্বাচনী হাওয়ার আঁচ পড়েছে বলিউড ও টালিউডেও। এবারের নির্বাচনেও প্রার্থী হয়েছেন বেশ কয়েকজন বলি তারকা।

অনেক বলি তারকা নিজ নিজ এলাকার প্রার্থীর প্রচারণাতেও নেমেছেন। তবে এসবের মধ্যে উল্টো পথে চলেছেন এ সময়ের জনপ্রিয় বলি তারকা আলিয়া ভাট।

নির্বাচনের প্রভাব তো তার ওপর পড়েইনি, উল্টো তিনি সাফ জানিয়ে দিলেন যে, ভোটই দেবেন না তিনি।

সম্প্রতি মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে আলিয়া ভাট ও বরুণ ধাওয়ান অভিনীত ‘কলঙ্ক’ ছবিটি। সে ছবির প্রচারণায় ব্যস্ত তিনি। কোনো নির্বাচনী প্রচারণা টানছে না তাকে।

ছবিটির এক প্রচারণা অনুষ্ঠানে সোনাক্ষী ও বরুণ বলেন এবার ভোট দিতে মুখিয়ে আছেন তারা। এ সময় আলিয়াকে একই প্রশ্ন করলে তিনি সবার সামনে বলেন, ‘আমি ভোট দিতে পারব না।’

এতে উপস্থিত দর্শক হতচকিত হয়ে পড়েন। আলিয়া ভাট কি ভারতীয় গণতন্ত্রে বিশ্বাসী নয়? নাকি রাজনীতি ও নেতাদের প্রতি ভরসা বা আগ্রহ নেই তার!

ভক্তদের মনে এসব প্রশ্ন আসার আগেই প্রকাশ্যে যে সত্যটি জানালেন আলিয়া, আমি ভারতীয় নাগরিক নই। আমি একজন ব্রিটিশ।’

তিনি বলেন, ‘আমার মা সোনি রাজদান ব্রিটিশ নাগরিক। ইংল্যান্ডেই আমার জন্ম। তাই জন্মসূত্রে আমিও ব্রিটিশ নাগরিকত্ব পেয়েছি।’

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার জানিয়েছে, আলিয়া ভাটের ভারতীয় নাগরিকত্ব নেই। তাই ভারতীয় গণতন্ত্রের কোনো নির্বাচনেই তিনি অংশ নিতে পারবেন না।

মন্তব্য
Loading...