‘ব্র্যাডম্যানকে ভুলে যান, কোহলি সুপারম্যান’

43

টানা তৃতীয়বার উইজডেনের ‘লিডিং ক্রিকেটার’ নির্বাচিত হলেন বিরাট কোহলি। শুধু ‘লিডিং ক্রিকেটার ইন দ্য ওয়ার্ল্ড’ই নয়, তার মুকুটে যোগ হয়েছে আরেকটি পালক। ক্রিকেটের বাইবেল হিসেবে পরিচিত উইজডেন ক্রিকেটার্স অ্যালমানাকের বিচারে বর্ষসেরা পাঁচ ক্রিকেটারের তালিকাতেও ঠাঁই পেয়েছেন তিনি।

কোহলি ছাড়া ভারত থেকে আগে কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার ও বীরেন্দ্র সেবাগ উইজডেনের ‘লিডিং ক্রিকেটার’-এর সম্মান পেয়েছেন। শচীন ২০১০ সালে এবং বীরু ২০০৮ ও ২০০৯ সালে পরপর দুবার এ সম্মানে ভূষিত হন। ভারতের বাইরে শ্রীলংকার কুমার সাঙ্গাকারা দুবার এ পুরস্কার পেয়েছেন।

তবে ২০০৩ সালে এ খেতাব দেয়ার পর কেউই তিনবার লিডিং ক্রিকেটার নির্বাচিত হতে পারেননি। সেটিই করে দেখালেন বিরাট।

২০০৭ সালের সংস্করণে ১৯০০ থেকে ২০০২ সাল পর্যন্ত ন্যাশনাল উইনার্সের তালিকা প্রকাশ করে উইজডেন। স্যার ডন ব্র্যাডম্যানকে সর্বোচ্চ ১০ বার এ সম্মানে ভূষিত করা হয়। কোহলি ছাড়া তিনিই একমাত্র ক্রিকেটার, যিনি টানা তিন বছর লিডিং ক্রিকেটার নির্বাচিত হন।

ভারতীয় অধিনায়ক ছাড়া তিনবার করে এ পুরস্কার উঠেছে জ্যাক হবস, ভিভ রিচার্ডস, শেন ওয়ার্নের হাতে। স্যার গ্যারি সোবার্স আটবার নির্বাচিত হয়েছেন এ খেতাবের জন্য।

শচীন, সেবাগ ও কোহলি ছাড়া ন্যাশনাল উইনার্স হিসেবে কপিল দেবের (১৯৮৫) নাম রয়েছে এ তালিকায়। শচীন ১৯৯৮ সালে ন্যাশনাল উইনার্স হন। ২০১৮ সালের পারফম্যান্সের নিরিখে এবার কোহলিকে বেছে নেয়া হয় লিডিং ক্রিকেটার ইন দ্য ওয়ার্ল্ড খেতাবের জন্য। তিন ফরম্যাট মিলিয়ে গেল বছর মোট দুই হাজার ৭৩৫ রান সংগ্রহ করেন তিনি। আলোচিত সময়ে ১৪ ওয়ানডেতে ছয়টি সেঞ্চুরিসহ ১৩৩ গড়ে ও ১০২ স্ট্রাইক রেটে এক হাজার ২০২ রান করেছেন ভারতীয় ব্যাটিং মায়েস্ত্রো।

টুইটারে এ পরিসংখ্যান তুলে ধরে উইজডেন বলেছে, ব্র্যাডম্যানকে ভুলে যান। এটি সত্যিই সুপারম্যানের মতো।

মন্তব্য
Loading...