দুর্ভোগে কুলাউড়া পৌরসভা মনসুর-চাতলগাঁও সড়কের কালভার্ট এখন মরণ ফাঁদ

78

ইউসুফ আহমদ ইমন, মৌলভীবাজার||
জেলার কুলাউড়া পৌরসভার মনসুর সাইনবোর্ড থেকে চাতলগাঁও সড়কের কালভার্টের উপর দিয়ে সকাল, দুপুর, রাতে হাজারো মানুষ অবিরাম যাতায়াত করছে। অতচ প্রায় দুই বছরেরও অধিক সময় থেকে কালভার্টের উপর ঢাকনাটি ভেঙ্গে যাওয়ায় এলাকার পথচারীও যানবাহনের বিপদের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। দিনের আলো শেষে রাত নেমে এলেই গর্তের ভিতরে পড়ে দুর্ঘটনার শিকার হতে হচ্ছে ইজিবাইক, মোটরসাইকেল চালক ও পথচারীদের।

সরেজমিনে দেখা গেছে, কুলাউড়া পৌরসভার মনসুর সাইনবোর্ড থেকে চাতলগাঁও যাওয়ার পথের জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কের উপর নির্মিত কালভার্ট ভেঙে প্রায় দুই বছর থেকে লোহার রড বের হয়ে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। সৃষ্ট পরিস্থিতিতে যে কোনো সময় বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা। এছাড়াও পুরো সড়কই খানা-খন্দের চিত্র দৃশ্যমান। এ নিয়ে নেই কারো মাথা ব্যাথা। এ অবস্থার মধ্যেও স্থানীয় ও আশাপাশের এলাকার হাজার হাজার মানুষজনকে প্রতিদিনই ঝুঁকি নিয়ে চলতে হচ্ছে। এদিকে যাতায়াতকারী ও স্থানীয়রা বলছেন, বহুদিন ধরে ভেঙে পড়ে থাকা কালভার্ট দিয়ে প্রতিদিন এলাকার স্কুল কলেজ পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রীসহ জনসাধারণ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করলেও ওয়ার্ড কাউন্সিলরসহ প্রথম শ্রেণীর পৌরসভার মেয়র কালভার্ট মেরামতের কোনো উদ্যোগ নিচ্ছেন না।

স্থানীয় বাসিন্দা তরিকুল ইসলাম বলেন, প্রথমে ছোট থাকলেও ধীরে ধীরে গর্তের আকার বাড়ছে। এতে ঝুঁকি নিয়েই সবাইকে চলাচল করতে হচ্ছে। এ সমস্যার ব্যাপারে বহুবার পৌর কর্তৃপক্ষকে বলা হলেও কেউ ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

স্থানীয়রা আরো জানান, যেই জায়গাটা ভেঙে নিচে পড়ে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে তা মূলত একটি কালভার্ট। তার মাঝখানের অংশ দুর্বল হয়ে পড়ে যাওয়ায় এ গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। তাই দিনে কোনো রকম চলাচল করা গেলেও রাতের অন্ধকারে তা ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠছে। সেখানে হালকা যানবাহন আটকে বা পড়ে গিয়ে দুর্ঘটনার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। তাই এ কালভার্ট ও সড়কটি মেরামতের জোর দাবি জানিয়েছেন এলাকার সাধারণ মানুষ।

মন্তব্য
Loading...