জাহাঙ্গীরনগর ইউনিভার্সিটি অ্যালুমনি এসোসিয়েশন ইন ইউকের স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

62

বিলেতে বসবাসরত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র ছাত্রীদের সংগঠন “জাহাঙ্গীরনগর ইউনিভার্সিটি অ্যালুমনি এসোসিয়েশন ইন ইউকে” (জুয়াক ) এর উদ্যোগে পূর্ব লন্ডনের সেলবি স্ট্রিট কমিউনিটি সেন্টারে পালিত হলো বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস। দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শতাধিক প্ৰাক্তন ছাত্রছাত্রী তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে উপস্থিত হয়ে পুরো সেন্টারটি হয়ে উঠে এক মিলন মেলা।
সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ফারুক খানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সভাপতি এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ষষ্ঠ ব্যাচের ছাত্র জনাব হারুনুর রশিদ। স্বাধীনতা দিবসের তাৎপর্য নিয়ে বক্তব্য রাখেন এমডি রেজাউল করিম (রাজু ) এবং সৈয়দ শাহীন আহমেদ। স্বাধীনতার কবিতা পাঠ করেন সামিনা আখতার।
জুয়াকের কর্মপরিধি এবং উদ্দেশ্য নিয়ে বক্তব্য রাখেন বিলেতের জনপ্রিয় মিডিয়া ব্যক্তিত্ব জুবায়ের বাবু। জুয়াক স্টাইপেন্ড ফান্ড এর আহ্ববায়ক যতীশ সাহা তার ভবিষ্যৎ কর্মপরিধি সম্পর্কে সবাইকে অবহিত করেন। স্বাধীনতার পরবর্তী জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের উপর পর্যাবৃত্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন ৭০ এর দশক থেকে শুরু করে ২০১০ সাল পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা গ্রহণকারী ছাত্র ছাত্রী বৃন্দ।
দুপুরের খাবারের পর পর শুরু হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সমেবত কণ্ঠে দেশের গান পরিবেশন শেষে নতুন প্রজন্মের মাহাথির, অপার, সামিন ও নাবিহা গান ও স্বাধীনতা নিয়ে বিশেষ উপস্থাপনা করে। তাছাড়া পারল, পৃথিকা ও সৌমিদ এর নৃত্য ও কাফি মাহমুদ এবং সঞ্চিতার প্রাণবন্ত গান ও কবিতা আবৃত্তি মাতিয়ে রাখে সবাইকে।
জাহানারা আখতার শিমলার তত্ত্বাবধানে শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা শেষে শিশুদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন জুয়াকের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সহ বিবিসি বাংলার প্রযোজক মাসুদ খান, সাহিত্য পাল, মিশকাত চৌধুরী সহ অগ্রজগণ । অনুষ্ঠানে নুরুল ইসলাম মঈন, সিনা আখতার, আখতার মাহমুদ, আফিয়া নার্গিস, নিয়াজ মাহমুদ, আনিস জামান, মনিরুজ্জামান সুমন, মিশু, পল্লব , সুমি, হিমু, সোহেল, সোয়েব, সুমন, সোমা, সোহেল,সাবিহা, কিবরিয়া, শিপলু, আসমা মোমিন আইরিন, রুবেল সহ আরো অনেকেই প্রাণবন্ত আড্ডায় অংশগ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানটি সার্বিক পরিচালনায় ছিলেন সৈয়দ আব্দুল্লাহ ইনান এবং বিশেষ সহযোগিতায় ছিলেন নাজমুল হক তুষার ও বাবলু।

মন্তব্য
Loading...