চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৩টি আসনে ভোট পড়েছে ৮২ শতাংশ : জামানত বাতিল ৬ প্রার্থীর

42

জাকির হোসেন পিংকু,চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি ||
একাদশ সংসদ নির্বাচনে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৩টি সংসদীয় আসনে গড় ভোট পড়েছে ৮১.৮২ শতাংশ। এ ছাড়া ৩টি আসনে প্রতিদ্বন্দী ১৩ প্রার্থীর মধ্যে নিয়মানুয়ায়ী প্রদত্ত ভোটের ( কাস্টিং ভোট) ৮ ভাগের ১ ভাগ বা সাড়ে ১২ শতাংশ ভোট না পাওয়ায় জামানত হারিয়েছেন ৬ প্রার্থী।
জেলা প্রশাসক ও রির্টানিং কর্মকর্তা এজেডএম নূরুল হক স্বাক্ষরিত চূড়ান্ত প্রাথমিক বেসরকারী ফলাফলানুযায়ী চাঁপাই-১ (শিবগঞ্জ) আসনে ভোট পড়েছে সর্বাধিক ৮৬.৫৮ শতাংশ। চাঁপাই-২(ভোলাহাট,গোমস্তাপুর ও নাচোল) আসনে ৮৪.৭৬ শতাংশ ও চাঁপাই-৩ (সদর) আসনে সবচেয়ে কম ৭৪.১৩ শতাংশ। এই হিসেব চাঁপাই-১ আসনে স্থগিত ৪টি কেন্দ্রের ১০,৩২৭টি ভোট ব্যতিতই করা হয়েছে।
জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম জানান, চাঁপাই-১ আসনে ৪ প্রার্থীর মধ্যে জামানত হারিয়েছেন ২ জন। এরা হলেন বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট-বিএনএফ প্রার্থী টেলিভিশন প্রতীকের নুরুল ইসলাম জেন্টু ( প্রাপ্ত ভোট ৪৮৭) ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাত পাখা প্রতীকের প্রার্থী মো.মনিরুল ইসলাম মনিউর (প্রাপ্ত ভোট ১,৩৫৩)। এই আসনে স্থগিত ব্যতিত ৪,০৫,৮০৫ ভোটের মধ্যে ১৮০০৭৮ ভোট পেয়ে জয়ী হন আ’লীগের ডা.সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল। ১,৬৩,৬৫০ ভোট পেয়ে নিকটতম প্রতিদ্বন্দী ছিলেন বিএনপির মো.শাহজাহান মিঞা।
চাঁপাই-২ আসনে ৩ জন প্রার্থীর মধ্যে জামানত হারিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাত পাখা প্রতীকের প্রার্থী মো. ইব্রাহীম খলিল ( প্রাপ্ত ভোট ১৬৩৭)।এই আসনে ৩,৭৭,০৫১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপির মো.আমিনুল ইসলাম। ১,৩৯,৯৫২ ভোট পেয়ে নিকটতম প্রতিদ্বন্দী ছিলেন আ’লীগের মুহ. জিয়াউর রহমান।
 চাঁপাই-৩ আসনে ৬ প্রার্থীর মধ্যে জামানত হারিয়েছেন ৩ জন। এরা হলেন,বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট-বিএনএফ প্রার্থী টেলিভিশন প্রতীকের কামরুজ্জামান খাঁন (প্রাপ্ত ভোট ১২৩), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাত পাখা প্রতীকের প্রার্থী আ. কাদের(প্রাপ্ত ভোট ৫২৯) ও জাকের পার্টির গোলাপ ফুল প্রতীকের প্রার্থী মো.বাবলু হোসেন (প্রাপ্ত ভোট ৯৭২)। এই আসনে ৩,৮২,৫৮০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপির মো.হারুনুর রশীদ। ৮৫,৯৩৮ ভোট পেয়ে নিকটতম প্রতিদ্বন্দী ছিলেন আ’লীগের মো.আব্দুল ওদুদ।এই আসনে স্বতন্ত্র (জামায়াত) প্রার্থী মো.নুরুল ইসলাম পেয়েছেন ৫৯,৫১৭ ভোট। 

মন্তব্য
Loading...