স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারের দলে ফেরার ইঙ্গিত দিলেন অস্ট্রেলিয়া কোচ

87

জিবি নিউজ24 ডেস্ক //

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিং করে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন; এবার পাকিস্তানের বিপক্ষে আসন্ন ওয়ানডে সিরিজে সাবেক অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারের দলে ফেরার ইঙ্গিত দিলেন অস্ট্রেলিয়া কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। ২০১৯ সালের মার্চ মাসে স্মিথ-ওয়ার্নার জুটির এক বছরের নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার দুই দিন পর পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়া ওয়ানডে সিরিজ শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

গত মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে কেপ টাউন টেস্টে বল টেম্পারিং কেলেংকারির পর আন্তর্জাতিক, ঘরোয়া শেফিল্ড শিল্ড এবং বিগ ব্যাশ লিগে স্মিথ-ওয়ার্নারকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। তাদের দুজনের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হবে ২৯ মার্চ এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের মাটিতে অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান সিরিজের নির্ধারিত সূচি রয়েছে ৩১ মার্চ থেকে ১৩ এপ্রিল। নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী সিরিজ অনুষ্ঠিত হলেও নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার দুই দিন পর জাতীয় দলে ফেরার সম্ভাবনা রয়েছে স্মিথ ও ওয়ার্নারের।

একইভাবে ল্যাঙ্গার বলেন, ২০১৯ সালে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য আইসিসি বিশ্বকাপের আগে নিষিদ্ধ ঘোষিত খেলোয়াড়দের পুনর্বাসনের ভালো সুযোগ হতে পারে পাকিস্তানের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। ল্যাঙ্গার বলেন, ‘এমন একটা সম্ভাবনা আছে। তবে এটা প্রক্রিয়ার একটা অংশ। আমাদের বোলারদের জন্য কোনটা ভাল হবে,তাদের ফেরার বিষয়ে অনেক আলোচনা হবে এবং আমরা সেভাবে কাজ করব।’

তিনি আরো বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট ও ব্যক্তিগতভাবে তাদের জন্য আমরা সেরাটা পাব। তবে এ পর্যায়ে এ বিষয়ে এখনো কোন সিদ্ধান্ত হয়নি।’

তবে এ দুজনের নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার পর পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ শুরু হলেও ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ প্রস্তুতি ম্যাচের আগে স্মিথ-ওয়ার্নারের জাতীয় দলে ফেরা নাও হতে পারে। স্মিথ ও ওয়ার্নার দুজনেই আসন্ন পাকিস্তান সুপার লিগ(পিএসএল) এবং বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে(বিপিএল) খেলার কথা রয়েছে। স্মিথের মতে বিশ্বকাপের আগে সেরা প্রস্তুতি হতে পারে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টগুলো।

কেপ টাউন কেলেংকারির পর প্রথমবার সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে গত সপ্তাহে স্মিথ বলেন, ‘আজকের দিনে যেভাবে ওয়ানডে খেলা হয়, এটা অনেকটা টি-টোয়েন্টির মত। সুতরাং প্রস্তুতির ভাল উপায় হতে পারে সংক্ষিপ্ত ভার্সন।’

মন্তব্য
Loading...