চাঁপাইনবাবগঞ্জে বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দীন জাহাঙ্গীর এর শাহাদৎবার্ষিকী পালিত

222
gb

জাকির হোসেন পিংকু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:
যথাযোগ্য মর্যাদায় চাঁপাইনবাবগঞ্জে বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দীন জাহাঙ্গীর এর ৪৭তম শাগদত বার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে শুক্রবার (১৪’ডিসেম্বর) সকালে শহরের রেহাইচর এলাকায় সড়ক ভবন কম্পাউন্ডে শহীদের শাহাদত¯’লে নির্মিত স্মৃতিস্তম্ভে জাতীয় সঙ্গীতের সাথে সাথে পতাকা উত্তোলন,পূষাপার্ঘ অর্পণ,দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 
অংশ নেয় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ,জেলা প্রশাসন,জেলা পুলিশ সহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক,সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন,সরকারী বেসরকারী সং¯’াসহ সর্বস্তরের মানুষ।
এসময় উপ¯ি’ত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমীন,অধ্যক্ষ এনামুল হক,খাইরুল ইসলাম,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক তাজকির-উজ-জামান ও দেবেন্দ্র নাথ উরাঁও,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান ও ইকবাল হোছাইন,জাতীয় মহিলা সং¯’ার চাঁপাইনবাবগঞ্জ শাখা চেয়ারম্যান ইয়াসমিন সুলতানা,সওজ প্রকৌশলী আতিকুল্লাহ প্রমুখ।
সকালেই শিবগঞ্জে গৌড়ের ঐতিহাসিক ছোট সোনামসজিদ প্রাঙ্গণে শহীদের সমাধি¯’লে একই ধরণের কর্মসূচী পালিত হয়। অংশ নেন শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চৌধুরী রওশন ইসলামসহ মুক্তিযোদ্ধাগণ। 
উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালের এই দিন ভোরে মাত্র ২০ জন মুক্তিযোদ্ধা নিয়ে ক্যাপ্টেন জাহাঙ্গীর বারঘরিয়া খেকে ৩/৪টি নৌকা করে মহানন্দা নদী পেরিয়ে নদীর পাড়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের রেহাইচর এলাকায় প্রবেশ করেন। এরপরপরই সেখানেই শুরু হয় পাক হানাদার ও তাদের এদেশীয় দোসরদের সাথে তুমুল সম্মুখ সমর। হানাদাররা যখন প্রায় পরাজিত তখন শত্রুর বাংকার চার্যে কপালে বুলেটবিদ্ধ হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন এই অকুতোভয় যোদ্ধা। 
মহান স্বাধীনতার উষালগ্নে ১৫ ডিসেম্বর সোনমসজিদ প্রাঙ্গণে তাঁর মরদেহ দাফন করা হয়। পাশেই রয়েছে মুক্তিযুদ্ধের ৭ নং সেক্টর কমান্ডার মেজর নাজমুল হকের সমাধি।
বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দীন জাহাঙ্গীর ১৯৪৯ সালের ৮ মার্চ বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জ উপজেলার রহিমগঞ্জ গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম মৌলভী আব্দুল মোতালেব হাওলাদার ও মাতা মোসাম্মৎ সাফিয়া বেগম। ##