সমাজের আয়না হিসাবে আত্মপ্রকাশ করলো সর্বভারতীয় নবচেতনা মানুষের আশার আলো হয়ে কাজ করবে 

227
gb
বিশেষ প্রতিবেদক
ড. হুমায়ুন কবীর একটি স্বপ্ন দেখেছিলেন মানুষের জন্য কিছু করার, বিশেষ করে পিছিয়ে পড়া মানুষের জন্য, শুধু মাত্র ক্ষুদ্র ধর্মীয় বা সামাজিক নির্দিষ্ট একটি গোষ্ঠীর জন্য নয়, সকলের কল্যাণ করার জন্যই এই ভাবনা। মানুষকে পাশে নিয়েই কিছু করে দেখানোর প্রয়াসে জন্ম নিল সর্বভারতীয় নবচেতনা নামক সামাজিক সংগঠন।
সমাজ কল্যাণে বড় ভাবনা থেকেই রাজনৈতিক রং বর্জিত এই সংগঠনের শুভ সূচনা হলো রবিবার। পাশে পেলেন যোগ্য তরুণ তুর্কী সমাজসেবী উদার আকাশ পত্রিকা ও প্রকাশনের সম্পাদক ফারুক আহমেদকে। ফারুক আহমেদ সহ বহু বিশিষ্ট মানুষ কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এগিয়ে এলেন এই কাজে। এই মহতী উদ্যোগের সূচনা, নিশ্চিত করে বলা যায় এক নতুন যুগের আহ্বান করলো কলকাতার আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পার্ক সার্কাস ক্যাম্পাসে।
“সর্বভারতীয় নবচেতনা”র আনুষ্ঠানিক আত্নপ্রকাশ অনুষ্ঠানে রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনকে নিয়ে মূল্যবান বক্তব্য রাখেন ড. মীরাতুন নাহার।
“অল ইন্ডিয়া নবচেতনা” (সর্বভারতীয় নবচেতনা) অরেজিস্ট্রেশন হয়েছে গত মাসের ৩০ নভেম্বর ২০১-তে। এদিন ৯ ডিসেম্বর, রবিবার সর্বভারতীয় নবচেতনার আনুষ্ঠানিক আত্নপ্রকাশ অনুষ্ঠান হয়ে হয়ে গেল আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়ামে। এদিনটি ছিল নারী শিক্ষা প্রসারে অফুরন্ত কাজ করেছেন যাকে নারী মুক্তির কান্ডারি বলা হয় সেই রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনের মৃত্যু দিন। এই দিনটিকেই স্মরণ করতে এবং “অল ইন্ডিয়া নবচেতনা” (সর্বভারতীয় নবচেতনা) সংগঠনের আনুষ্ঠানিক আত্নপ্রকাশের জন্য ঠিক করলেন এই সহস্থার অন্যতম কর্ণধার  তথা সভাপতি ড. হুমায়ুন কবীর ও সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমেদ। এদিন রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনকে নিয়ে মূল্যবান বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট সমাজকর্মী ড. মীরাতুন নাহার।
“সর্বভারতীয় নবচেতনা”র  আনুষ্ঠানিক আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে বহু বিশিষ্ট মানুষ উপস্থিত হয়েছিলেন। এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের  মধ্য দিয়ে নারী কল্যাণের অগ্রদূত রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনকে স্মরণ করা হয়।
৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ রবিবার দুপুরে আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয় পার্ক সার্কাস ক্যামপাসের অডিটোরিয়ামে “সর্বভারতীয় নবচেতনা”র আনুষ্ঠানিক আত্নপ্রকাশ অনুষ্ঠানে রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনকে নিয়ে মূল্যবান বক্তব্য রাখেন বাংলার রোকেয়া গবেষক ও বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ড. মীরাতুন নাহার ও আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আমজাদ হোসেনন।
“সর্বভারতীয় নবচেতনা”র কাজ ও উদ্দেশ্য নিয়ে বক্তব্য রাখেন এই সমাজিক সংগঠনের সভাপতি ড. হুমায়ুন কবীর, আইপিএস, ডিআইজি, মোঃ নিজাম শামিম, আইপিএস, নিশাত পারভেজ, আইপিএস, ডিআইজি, সিআইডি, আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নিবন্ধক ড. নুরশেদ আলি, নদীয়া জেলার পিপি নাসির উদ্দিন আহমেদ, আইনজীবি ইনতাজ আলি শহ, সমাজকর্মী পতাকা শিল্পগোষ্ঠীর ম্যানেজার শহিদুল ইসলাম খান, ড. খাজা আলিম আহমেদ, জাহাঙ্গীর আলম, আজাদ মহলদার, শামসুল আলম, কাজী সিরাজুল ইসলাম, পীরজাদা সৈয়দ রুহুল আমিন, পীরজাদা খোবায়েব আমিন, অধ্যাপক বিশ্বজিৎ রায় চৌধুরী, সুমন মুন্সি, নজরুল ইসলাম প্রমুখ।
এদিন প্রতি বছরের মতো “উদার আকাশ রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন স্মারক সম্মাননা ২০১৮” প্রদান করা হয়। উদার আকাশ পত্রিকার সম্পাদক ফারুক আহমেদ উদার আকাশ রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন স্মারক সম্মাননা ড. মীরাতুন নাহার-এর হাত দিয়ে বিশিষ্ট সাংবাদিক ও অধ্যাপক সুমন মুন্সির হাতে তুলে দেন। পাশে ছিলন সমস্ত অতিথিরা।