মাদরাসা কমিটি গঠন নিয়ে সংঘর্ষ, ২৫০ জনকে আসামি করে মামলা

224
gb

জিবি নিউজ 24 ডেস্ক//

শেরপুর শহরের ঐতিহ্যবাহী তেরাবাজার জামিয়া সিদ্দিকিয়া মাদরাসার কমিটি গঠন নিয়ে আ. লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় ২৫০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। শেরপুর সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. রবিউল ইসলাম বাদী হয়ে ২৫০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে ৮ জুলাই রবিবার সন্ধ্যায় এ মামলাটি দায়ের করেছেন। মামলায় ইটপাটকেল নিক্ষেপ, দু’পক্ষের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া এবং পুলিশ অ্যাসল্টের অভিযোগ করা হয়েছে।

৭ জুলাই শনিবার দুপুরে তেরাবাজার জামিয়া সিদ্দিকিয়া মাদরাসার কমিটি গঠন উপলক্ষে ত্রি-বার্ষিক সাধারণ সভায় স্থানীয় আ. লীগের দুইপক্ষ ইট-পাটকেল নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে তিন পুলিশসহ ১০ জন আহত হয়। এ সময় পুলিশ ৬২ রাউন্ড রাবার বুলেট ও ৫ বাউন্ড কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নজরুল ইসলাম তেরাবাজার মাদরাসার ঘটনায় মামলা রেকর্ডের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. রবিউল ইসলাম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ২৫০ জনকে আসামি করে সদর থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন।

এদিকে, তেরাবাজার জামিয়া সিদ্দিকীয়া মাদরাসার কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে শনিবার দুপুরের সংঘর্ষের ঘটনাটি রবিবার দুপুরে জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায়ও ব্যাপকভাবে আলোচিত হয়। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করে আইনানুগ পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য কয়েকজন সদস্য জোড়ালো বক্তব্য রাখেন।

তারা শেরপুর শহরকে শান্ত রাখার আহবান জানিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের চিহ্নিত করে তাদের দমন করার আহবান জানান। সভায় অংশগ্রহকারী কয়েকজন সদস্য এমন কথা জানিয়েছেন।