কাতার প্রবাসীর বাড়ীতে সন্ত্রাসী হামলা ভাংচুর লুটপাট, শ্লীলতাহানি

242
gb

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা::

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে কাতার প্রবাসীর বাড়ীতে সন্ত্রাসী কায়দায় হামলা ভাংচুর লুটপাট সহ প্রবাসীর স্ত্রীর শ্লীলতাহানির বিচারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভূক্তভোগী অসহায় পরিবার।
বুধবার বেলা ১১ টায় চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের বিচার ও পরিবারের নিরাপত্তার দাবীতে নিজ বাড়ীতে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কামারদহ ইউপির মাস্তা (শোলা পাড়া) গ্রামের নজমাল সরকারের পুত্র কাতার প্রবাসী মিন্টুর স্ত্রী শিল্পী বেগম (২৮)।
তার লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন, গত ১লা এপ্রিল শনিবার আনুমানিক বিকাল ৪টায় উপজেলার কামারদহ ইউনিয়নের বকচর গ্রামের আনোয়ারের ছেলে সোহাগ শামীম ২০/২৫ জনের পেষাদার ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে প্রবাসীর মিন্টুর বাড়ীতে অর্তকিত ভাবে হামলা চালিয়ে বাড়ীর ৬টি কক্ষের চেয়ার, টেবিল, শে-কেচ, বাক্স সহ যাবতীয় আসবাবপত্র ব্যাপক ভাংচুর করে ও বাক্সে থাকা নগদ টাকা এবং স্বর্ণালংকা সহ মূল্যবান কাগজপত্র নিয়ে হত্যার হুমকি দিয়ে বীর দর্পে চলে যায়। এতে ওই পরিবারের নগদ টাকাসহ প্রায় ১০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি সাধন করেছে। এছাড়াও প্রতিদিন উল্লেখিত সন্ত্রাসী বাহিনী মিন্টুর বাড়ীতে এসে হত্যা সহ পরিবারের লোকজনকে অপহরন করে নিয়ে যাওয়ার হুমকি ধামকি প্রদান করে যাচ্ছে। প্রাণ ভয়ে বাড়ীতে কয়েকদিন যাবত মিন্টু সহ অন্য পুরুষ লোকেরা পালিয়ে বেড়াচ্ছে। বাড়ীতে পুরুষ লোককে না পেয়ে সন্ত্রাসীরা এখন পরিবারের সদস্য স্ত্রী ও সন্তানদের আপহরনের হুমকি দিচ্ছেন। সেই কারনে অপহরন ও প্রাণের ভয়ে পরিবারের স্কুল পড়–য়া ছেলে মেয়েরা বিদ্যালয়ে লেখাপড়া এবং পরীক্ষা দিতে যেতে পারছেনা ও মহিলা লোক বাড়ীর বাহিরে বের হতে পাচ্ছেনা।এ ব্যাপারে স্থানীয় গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি উল্লেখিত সন্ত্রাসীদের নামে এজাহার দেয়া হলেও রহস্যজনক কারনে পুলিশ ব্যবস্থা না নেওয়ায় পরিবারটি অসহায় অবস্থায় রয়েছে।
পরিবারটির নিরাপত্তার দাবীতে ও সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের অবগতি এবং আশু হস্তক্ষেপ কামনায় এ সংবাদ সম্মেলন। সংবাদ সম্মেলনে শিল্পী বেগমের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন, মিন্টুর বাবা নজমাল সরকার , মিন্টুর ভাই রশিদুলের স্ত্রী লাকী বেগম, প্রতিবেশী আনছার আলী তালুকদার , আব্দুল মান্নান সরকার, মুঞ্জুর প্রধান, শিউলী আকতার, আব্দুল মতিন ও সামছ উদ্দিন প্রমূখ।