প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ধন্যবাদ

343
gb

হাকিকুল ইসলাম খোকন ||

নিউইয়র্ক ১২ সেপ্টেম্ব মায়ানমারের সামরিক বাহিনীর অত্যাচারে ৩ লক্ষ্যেরও বেশী রোহিঙ্গা গত কয়েকদিন বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। জীবন বাঁচাতে দূর্গম পথ পাড়ি দিয়ে ও বাংলাদেশের সীমান্ত অতিক্রম করে ঢোকা রোহিঙ্গাদের দায়িত্ব নিয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বে মানবিকতার যে উদারহণ সৃষ্টি করেছে তা অনন্য। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ তার এই মহানুভবতায় গর্বিত।খবর বাপসনিঊজ।
মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কক্সবাজারে রোহিঙ্গা উদ্বান্তু শিবির পরিদর্শন করতে গিয়ে বলেছেন ১৬ কোটি মানুষের দেশ বাংলাদেশ সব মিলিয়ে ৭ লাখ রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুদের তাদের প্রয়োজনে যতদিন বাংলাদেশে থাকার থাকতে দিবে এবং তাদের সব রকম সহায়তা দিবেন তার সরকার।

সা¤প্রতিক সময়ে বিশ্বের সবচেয়ে বড় মানবিক বিপর্যয় নেমে আসে মায়ানমারের আরাকান রাজ্যের রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর উপর। বিশ্বের বড় বড় শক্তিগুলো এই অমানবিক কার্যক্রম থেকে মায়ানমারের সরকারকে বিরত করতে পারেনি। আর তারই ফলশ্রুতিতে ১০ দিনের মধ্যে তিন লক্ষ্যেরও বেশী রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন এই সমস্যার সৃষ্টি করেছে মায়ানমার এবং সমাধানও করতে হবে তাদেরকে। কিন্তু নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের মাতৃছায়ায় আশ্রয় দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রমাণ করলেন তিনি শুধু বাংলাদেশের জনগণের নেত্রীই নন, সেই সাথে বিশ্বের নিপীড়িত জনগণেরও নেত্রী তিনি।

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই মানবিক সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে নির্যাতিত-নিপীড়িত রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়াতে বিশ্বের সকল বিবেকবান মানুষকে আহŸান জানায়। সেই সাথে এই সমস্যা সমাধানে জাতিসংঘ ও বিশ্বের সকল রাষ্ট্রের প্রতি বাংলাদেশকে সহযোগিতা প্রদানের অনুরোধ করছে।