বিয়ানীবাজারে শিক্ষকের বেত্রাঘাতে শিক্ষার্থীর চোখ মারাত্বক জখম

বিয়ানীবাজারে শিক্ষকের বেত্রাঘাতে শিক্ষার্থীর চোখ মারাত্বক জখম

বিয়ানীবাজারে শিক্ষকের বেত্রাঘাতে শিক্ষার্থীর চোখ মারাত্বক জখম

1,387
gb

মুকিত মুহাম্মদ, বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি ||

মানুষ গড়ার কারিগর শিক্ষকের বেতের আঘাতেই এক শিক্ষার্থীর চোখ মারাত্মকভাবে জখম হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে বিয়ানীবাজার পিএইচজি হাই স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণিতে এ ঘটনা ঘটে। আহত শিক্ষার্থীকে সিলেট এমএজি ওসমানি হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। জানা যায়, বিদ্যালয়ের ইসলাম শিক্ষা বিষয়ের শিক্ষক আবু সুফিয়ান শ্রেণীকক্ষে পাঠদানে অমনোযোগী থাকা এক শিক্ষার্থীকে বেত্রাঘাত করেন। এ সময় পাশে থাকা শিক্ষার্থী মাহদি হোসেনের বাম চোখে গিয়ে বেতের একটি অংশ আঘাত করে। সাথে সাথে তার চোখ থেকে রক্ত ঝরতে থাকলে শিক্ষক আবু সুফিয়ানসহ অন্য শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা তাকে শ্রেণি কক্ষ থেকে বিয়ানীবাজার উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে সিলেট প্রেরণের পরামর্শ দেন। বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক বলেন, শিক্ষার্থীর বাম চোখের ক্রনিয়া আহত হয়েছে। চোখের জখম হওয়া অংশ থেকে রক্ত ঝরছে। আমরা প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে সিলেট নেয়ার জন্য স্বজনদের পরামর্শ দিয়েছি। শিক্ষার্থী মাহদি হোসেন (১১) পিএইচজি স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী। সে পৌরসভার শ্রীধরা গ্রামের আতিক হোসেনের পুত্র। পিএইচজি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল হাসিব জীবন ঢাকায় রয়েছেন জানিয়ে বলেন, একটি অনাকাঙ্কিত ঘটনা ঘটে গেছে। শিক্ষকরা আহত শিক্ষার্থীকে প্রথমে উপজেলা হাসপাতালে এবং পরে সিলেট প্রেরণ করেছেন।