কারিনার ফিগার রহস্য

325
gb

জিবিনিউজ ডেস্ক //

বলিউডের জনপ্রিয় নায়িকা তিনি। বলি টাউনে জিরো ফিগারের ট্রেন্ড এসেছে তার হাত ধরেই। সন্তান জন্মের সময় স্বাভাবিকভাবেই কিছুটা মুটিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু এর কয়েক মাসের মধ্যেই ম্যাজিকের মতো শরীর ছিপছিপে বানিয়ে ফেলেছেন। ফিরেছেন কাজে। তিনি কারিনা কাপুর।

আবেদনময়ী এ নায়িকার ফিগার ও ফিটনেট বরাবরই ঈর্ষণীয়। অনেকের মনেই প্রশ্ন, এর রহস্য কী? কারিনার সেই রুটিন সম্প্রতি শেয়ার করেছেন তার নিউট্রিশনিস্ট রুজুতা দিওয়েকার। আসুন দেখে নেওয়া যাক-

১. রুজুতার মতে, নিজের কথা শুনতে হবে। হয়ে উঠতে হবে নিজেই নিজের শাসক। অন্য কারও পরামর্শ নয়। বরং নিজেই নিজের ডায়েট বা ফিটনেস ঠিক করুন। কারিনা এটাই করে থাকেন।

২. অনেকেই মনে করেন, চিনি ফ্যাট বাড়ায়। কিন্তু রুজুতা বলেন, সঠিক পরিমাণে চিনি শরীরকে ডিটক্স করে। ফলে ডায়েটে চিনি রাখার পরামর্শ তার। চটোলেট, পেস্ট্রি খেয়েও কারিনা নিজের চেহারা ধরে রেখেছেন বলে জানিয়েছেন রুজুতা।

৩. ঘি’কে গুড ফ্যাটের তালিকায় রেখেছেন রুজুতা। তিনি জানান, পোস্ট প্রেগন্যান্সি পিরিয়ডে ঘি খুবই উপকারী। স্কিনকে টোন ও ডিটক্স করতে তৈমুর হওয়ার পর তার পরামর্শে ঘি খেয়েছেন কারিনা। সঙ্গে করেছেন নিয়মিত যোগ ব্যায়াম।

৪. রুজুতা জানান, নারকেল ও ডাবের পানি খুব উপকারী। এটি অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টি ভাইরাল হিসেবে কাজ করে। খাদ্য তালিকায় নারকেলের লাড্ডু ও বরফি রাখেন কারিনা।

৫. রুজুতার মতে, হাঁটা কোনো এক্সসারসাইজ নয়, এটি একটা অ্যাক্টিভিটি। যোগ ব্যয়াম, দৌড়ানো, ওয়েট ট্রেনিং, গ্রুপ কার্ডিও’র মাধ্যমে নিজেকে ফিট রাখার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। কারিনা এই রুটিনই ফলো করেন বলেন জানান তিনি। সূ