Bangla Newspaper

লক্ষ্মীপুরে ৪০ হাজার টাকায় নবজাতক বিক্রি

184

জিবিনিউজ24 ডেস্ক || লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ৪০ হাজার টাকায় এক নবজাতক কন্যাকে সন্তানকে বিক্রি করা হয়েছে। উপজেলার কেরোয়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে গতকাল বুধবার এ ঘটনা ঘটে। অভিযোগ উঠেছে, ওই কেন্দ্রের পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা (এফডাব্লিউভি) সুফিয়া আক্তার দরিদ্র দিনমজুর পরিবারকে প্ররোচিত করে এক প্রবাসী ফেরত ব্যক্তির কাছে নবজাতককে বিক্রি করে দেন।সংশ্লিষ্ট ও স্থানীয় সূত্র জানায়, লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার হামছাদীর হাসন্দি জমাদার বাড়ির দিনমজুর ইব্রাহিম হোসেনের স্ত্রী মহিমা বেগমের প্রসব ব্যথা শুরু হয়। এতে বুধবার দুপুরে তাকে কেরোয়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে নিয়ে আসে পরিবারের সদস্যরা।

এসময় কেন্দ্রের পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা (এফডাব্লিউভি) সুফিয়া আক্তারের তত্ত্বাবধায়নে মহিমা স্বাভাবিকভাবে কন্যা সন্তান প্রসব করে। কন্যা জম্ম নেওয়ায় স্বামী ইব্রাহিম কান্না ভেঙ্গে পড়ে। ইব্রাহিমের আগে তিন কন্যা সন্তান রয়েছে। পুত্র সন্তানের আশায় তারা আবার সন্তান নেয়। কিন্তু কন্যা হওয়ায় নিজেদের ‘অভিশপ্ত’ মনে করে তারা। এক পর্যায়ে নবজাতককে বিক্রি করে দিতে সুফিয়া তাদেরকে প্ররোচিত করে।

প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় দুই ব্যবসায়ী জানায়, ওই নবজাতককে ৩০ হাজার টাকায় কিনতে দুইজন প্রার্থী ছিল। পরে ভিজিটর সুফিয়া ৪০ হাজার টাকায় এক প্রবাসীর কাছে সন্তান বিক্রি করতে রফাদফা করে দেন। এখানে প্রায়ই এ ধরনের ঘটনা ঘটে।

নবজাতকের পিতা ইব্রাহিম হোসেন সংবাদকর্মীদের বলেন, আমার তিন কন্যা রয়েছে। নতুন করে আরেক কন্যা হয়েছে। আপনারা কিছু জানতে হলে ভিজিটরের সঙ্গে কথা বলেন। কেরোয়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা (এফডাব্লিউভি) সুফিয়া আক্তার বলেন, আমি বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সঠিক নয়। নবজাতক জম্মের পর স্বজনরা এক হাজার টাকা ওষুধ খরচ দিয়ে নিয়ে গেছে। বাহিরে সন্তান বিক্রি হয়েছে কিনা আমার জানা নেই।

এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুর জেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালক ডাক্তার আশফাকুর রহমান মামুন বলেন, ঘটনাটি কেউ আমাকে জানায়নি। তবে খোঁজ-খবর নেওয়া হবে।

Comments
Loading...